বিপর্যস্ত ভারতে কমলো সংক্রমণ ও মৃত্যু


  • অনলাইন ডেস্ক
  • ২৭ জুলাই ২০২১, ১২:৫১

ভারতজুড়ে তাণ্ডব চালানো করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের ঊর্ধ্বগতি সংক্রমণ ক্রমেই নিয়ন্ত্রণে এসেছে। ১৩২ দিন পর দৈনিক সংক্রমণে সবচেয়ে কম রোগীর দেখা পেয়েছে দেশটি। এছাড়া মৃত্যুও কমেছে। একইসঙ্গে ১২৪ দিন পর দেশটিতে সক্রিয় রোগী নেমেছে চার লাখের নিচে।

মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে নতুন করে করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ২৯ হাজার ৬৮৯ জন মানুষ। গতকালের তুলনায় দেশটিতে নতুন সংক্রমিত রোগী কমেছে প্রায় ১০ হাজার। সর্বশেষ এই সংখ্যাসহ মহামারির শুরু থেকে দেশটিতে করোনায় আক্রান্তের মোট সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩ কোটি ১৪ লাখ ৪০ হাজার ৯৫১ জনে।

অন্যদিকে এদিন ভারতে করোনায় মারা গেছেন ৪১৫ জন। যা গতকালের থেকে মৃত্যু কমেছে ১ জন। মহামারির শুরু থেকে দেশটিতে এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ৪ লাখ ২১ হাজার ৩৮২ জন।

এদিকে দৈনিক সুস্থতা ও সংক্রমণের সংখ্যায় একদিন পরই আগের চেহারায় ফিরেছে ভারত। সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে ভাইরাসে নতুন করে আক্রান্ত রোগীর তুলনায় সুস্থ হয়েছেন বেশি মানুষ। ফলে ১২৪ দিন পর ভারতে সক্রিয় রোগীর সংখ্যা নেমেছে ৪ লাখের নিচে। চলতি বছরের ২৫ মার্চ শেষবার ভারতের সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ছিল ৪ লাখের কম। দৈনিক সংক্রমণ বৃদ্ধির কারণে এরপর থেকে ধারাবাহিকভাবে বাড়তেই থাকে সক্রিয় রোগী।

গত একদিনে ভারতে সুস্থ হয়েছেন ৪২ হাজার ৩৬৩ জন। অন্যদিকে দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা ২৯ হাজার ৬৮৯। ফলে দেশটিতে এখন মোট সক্রিয় রোগীর সংখ্যা কমে দাঁড়িয়েছে ৩ লাখ ৯৮ হাজার ১০০ জন। দেশটির মোট শনাক্ত রোগীর ১ দশমিক ২৭ শতাংশ বর্তমানে সক্রিয় রোগী। দেশটিতে এখন সুস্থতার হার বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৯৭ দশমিক ৩৯ শতাংশে।

ভারতে বর্তমানে দৈনিক সংক্রমণের হার নেমে এসেছে ২ শতাংশের নিচে, ১ দশমিক ৭৩ শতাংশে। টানা ৩৬ দিন ধরে দেশটিতে এই হার ছিল ৫ শতাংশের নিচেই রয়েছে।

মানবকণ্ঠ/ এমএ


poisha bazar

ads
ads