করোনার অভিযোগে স্বামীকে নির্মম নির্যাতন, ভিডিও ভাইরাল


poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ২৭ জুন ২০২০, ১৭:১৬,  আপডেট: ২৭ জুন ২০২০, ১৭:২০

বৃদ্ধ শ্বশুর-শাশুড়িকে ঘরে রাখতে নারাজ স্ত্রী। সেই কারণেই স্বামীকে প্রতিনিয়ত নির্যাতন করতো স্ত্রী। অত্যাচারের মাত্রা এমন পর্যায়ে পৌঁছেছে যে শরীরে একাধিক জায়গায় সিগারেটের ছ্যাকা ও মারধোরের কালসিটে দাগ রয়েছে ওই যুবকের। অত্যাচারের মাত্রা সহ্য করতে না পেরে অবশেষে পুলিশের দ্বারস্থ হলেন ওই যুবক।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জি ২৪ ঘণ্টার খবরে বলা হয়েছে, লকডাউনের শুরুতে বৃদ্ধ বাবাকে বৈদ্যবাট এলাকায় রেখে এসেছিলেন ছেলে। আনলক-১ এ তাদের নিয়ে আসে। কিন্তু স্ত্রীর দাবি, তারা করোনা এনেছে। বাড়িতে রাখা যাবে না। এই অজুহাতে স্বামীকে নির্মম নির্যাতন করে স্ত্রী।

নির্যাতিত স্বামী সংবাদমাধ্যমকে বলেন, আমার বাবা-মার মেডিকেল ফিট সার্টিফিকেট রয়েছে। আমাকে চড়-থাপ্পড় মারা হয়। সিগারেটের আগুন দেয়া হয়। মুখে লাথি মেরে ঠোঁট ফাটিয়ে দেয়া হয়।

তিনি জানান, পরে পুলিশের কাছে গিয়েছিলাম। তারা বললেন, আইনগুলো সব মেয়েদের পক্ষে। সে কারণে আপনার জন্য তেমন কিছু করার নেই।

এদিকে, এই মুহূর্তে তিনি তার বাবা-মাকে কোথায় রাখবেন তা নিশ্চিত হয়। তিনি আইনজীবীদের সহায়তা নিয়েছেন। আইনজীবীদের দিয়ে আদালতের মাধ্যমে সিদ্ধান্ত চান তিনি।

মানবকণ্ঠ/এফএইচ





ads






Loading...