‘জিনগত পরিবর্তনে দুর্বল হয়ে পড়েছে করোনাভাইরাস’

‘জিনগত পরিবর্তনে দুর্বল হয়ে পড়েছে করোনাভাইরাস’
‘জিনগত পরিবর্তনে দুর্বল হয়ে পড়েছে করোনাভাইরাস’ - ফাইল ছবি

poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ০৩ এপ্রিল ২০২০, ১৯:৪৮,  আপডেট: ০৩ এপ্রিল ২০২০, ২০:২৩

চীনের উহান থেকে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) বৈশ্বিক মহামারীতে রুপ নিয়েছে। প্রতিদিন মৃত্যুর মিছিল বাড়ছে, বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যাও। এদিকে ভারতের হায়দরাবাদের এশিয়ান ইনস্টিটিউট অব গ্যাস্ট্রোএনটেরোলজির চেয়ারম্যান ও পদ্মভূষণপ্রাপ্ত জি পি নাগেশ্বর রেড্ডি দাবি করছেন করোনার জিনগত কিছু বৈশিষ্ট্য পরিবর্তন হয়েছে। ফলে এই ভাইরাস দুর্বল হয়ে পড়েছে।

গত ২৯ মার্চ দ্য নিউ ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে দেয়া সাক্ষাৎকারে তিনি এমনটাই দাবি করেন। এছাড়া প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসকে জয় করা সম্ভব বলেও মন্তব্য করেছিলেন জি পি নাগেশ্বর রেড্ডি।

সাক্ষা’কারে নাগেশ্বর বলেন, করোনাভাইরাস যখন ইতালি, যুক্তরাষ্ট্র বা ভারতে ছড়িয়েছে, তখন এর জিনগত কিছু বৈশিষ্ট্য পরিবর্তিত হয়েছে। চারটি দেশ- প্রথমে যুক্তরাষ্ট্র, পরে ইতালি, এরপর চীন এবং চতুর্থত, ভারতে এর জিনগত বৈশিষ্ট্য উন্মোচন করা হয়েছে। সেখানে দেখা গেছে, ইতালিতে ছড়ানো ভাইরাসের সঙ্গে ভারতে ছড়ানো ভাইরাসের ভিন্ন বৈশিষ্ট্য রয়েছে। এর গুরুত্ব অত্যধিক হতে পারে। কারণ, ভারতের ভাইরাসটির স্পাইক প্রোটিনে কিছু কিছু জিনগত পরিবর্তন হয়েছে।

তিনি বলেন, স্পাইক প্রোটিনের মাধ্যমেই ভাইরাসটি মানবশরীরের কোষে সংযুক্ত হয়। ভারতের ক্ষেত্রে কম যুক্ত হয়েছে, যার অর্থ, ভাইরাসটি দুর্বল হয়ে পড়েছে। এটা ভারতের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হতে পারে। মে মাসে যখন ভারতের তাপমাত্রা বাড়বে তখন করোনার সংক্রমণও কমে যেতে পারে।

মানবকণ্ঠ/এসকে




Loading...
ads






Loading...