নাগরিক বিল: প্রতিবাদী স্ফুলিঙ্গ আসামের কানায় কানায়

নাগরিক বিল: প্রতিবাদী স্ফুলিঙ্গ আসামের কানায় কানায়
সড়কে প্রতিবাদী জনতার বিক্ষোভ - ছবি- আনন্দবাজার

poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ১২ ডিসেম্বর ২০১৯, ১৮:২৬

নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল নিয়ে ক্ষোভ জানিয়ে কারফিউ ভেঙ্গে ভারতের আসাম রাজ্যে গুয়াহাটির রাস্তায় নেমে এসেছে সাধারণ মানুষ। সরকারি বাহিনীর সামনেই কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে স্লোগান দিয়ে জায়গায় জায়গায় বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন তারা। খবর আনন্দবাজার অনলাইনের।

ভারতের লোকসভায় গত সোমবার নাগরিকত্ব (সংশোধনী) বিল পাস হয়। এতে বাংলাদেশ, আফগানিস্তান ও পাকিস্তান থেকে ভারতে আশ্রয় নেয়া হিন্দুসহ অমুসলিমদের নাগরিকত্ব দেয়ার বিধান রাখা হয়েছে। তুমুল বিতর্কের মধ্যে বুধবার রাতে রাজ্যসভায়ও পাস হয়ে যায় ক্ষমতাসীন বিজেপি সরকারের আনা বহুল আলোচিত এই বিলটি।

এদিকে এই বিলের প্রতিবাদে বুধবারেই ক্ষোভে ফেটে পরে আসামের জনতা। কোন ব্যানার নয়, সংগঠন নয় বরং সাধারণ মানুষ ও শিক্ষার্থীরা নেমে আসে রাস্তায়। জনতার তীব্র ক্ষোভের পরে বৃহস্পতিবার আন্দোলনকারীদের স্লোগানে গলা মেলায় অল আসাম স্টুডেন্টস ইউনিয়ন (আসু) এবং কৃষক মুক্তি সংগ্রাম সমিতি (কেএমএসএস)। এসময় সর্বস্তরের মানুষকে ঘর ছেড়ে রাস্তায় নামার আহ্বান জানান আন্দোলনকারীরা।

আজ সকালে আসু এক বিবৃতিতে আহ্বান জানিয়ে বলে, নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের বিরুদ্ধে লড়াই চলবে। বেলা ১১টায় গুয়াহাটির লতাশিল ময়দানে জমায়েত রয়েছে। তার জন্য সবাইকে ঘর ছেড়ে রাস্তায় নামার আহ্বান জানাচ্ছি আমরা।

এদিকে তীব্র ক্ষোভের স্ফুলিঙ্গ ছড়িয়েছে আসামের বিমান, ট্রেন ও গণপরিবহনেও। সকাল থেকে এয়ার ইন্ডিয়া, ইন্ডিগো, স্পাইসজেট, ভিস্তারা, গো এয়ারসহ বেশ কিছু সংস্থা আসাম বিমান বন্দর থেকে তাদের একাধিক ফ্লাইট বাতিল করেছে। বাতিল করা হয়েছে বেশ কিছু বিমানের অবতরণও।

এয়ারপোর্ট অথরিটি অব ইন্ডিয়ার উত্তর-পূর্ব শাখার নির্বাহী পরিচালক সঞ্জীব জিন্দল বলেন, ডিব্রুগড়ে ৯টি ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে। বিমানবন্দর সংলগ্ন এলাকায় ট্যাক্সিও পাওয়া যাচ্ছে না, যার ফলে গতকাল যারা বিমানবন্দরে পৌঁছেছিলেন, তারা এখনও আটকে।

বুধবার বিক্ষোভ চলাকালে ডিব্রুগড়ের ছাবুয়ার একটি রেল স্টেশন চত্বরে আগুন ধরিয়ে দেয় বিক্ষোভকারীরা। তিনসুকিয়ার পানিতোলা স্টেশন চত্বরেও আগুন ধরানো হয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে আসামে সব লোকাল ট্রেন বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রেল কর্তৃপক্ষ। আপাতত ডিব্রুগড় থেকে সমস্ত দূরপাল্লার ট্রেনও বন্ধ রাখা হয়েছে।

মানবকণ্ঠ/এআইএস





ads






Loading...