গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের আন্দোলনে আমরা জীবন দিতে প্রস্তুত: ইশরাক


  • অনলাইন ডেস্ক
  • ৩০ জানুয়ারি ২০২৩, ২০:৩২

বিএনপি নেতা ইঞ্জিনিয়ার ইশরাক হোসেন বলেছেন, ৩০ লাখ শহীদের বিনিময়ে যে স্বাধীনতা অর্জিত হয়েছে সে স্বাধীনতা আজ হুমকির সম্মুখীন। আওয়ামী লীগ নিজের ক্ষমতা টিকিয়ে রাখতে স্বাধীনতার পরপর হাজার হাজার মানুষ হত্যা করেছে। এখনো তার ধারাবাহিকতা অব্যাহত রেখেছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের আন্দোলনে ইতিমধ্যে অনেকে মারা গেছেন। এ আন্দোলনে আমরা জীবন দিতে প্রস্তুত।

সোমবার (৩০ জানুয়ারি) বিকেলে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার ও ১০ দফা দাবিতে যাত্রাবাড়ী আইডিয়াল স্কুলের সামনে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপি আয়োজিত পদযাত্রা কর্মসূচিতে তিনি এসব কথা বলেন।

কর্মসূচিতে সভাপতিত্ব করেন ঢাকা দক্ষিণ বিএনপির আহবায়ক আব্দুস সালাম। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।
এ সময় ইশরাক বলেন, দেশের মানুষ আজ বন্দী জীবন-যাপন করছে। বিরোধীমত তার কথা প্রকাশ করতে পারছে না। সত্য বললে বা প্রতিবাদ করলে মামলার খড়গ। বেশি প্রতিবাদ করলে গুম হয়ে যায়। সরকারি দল রাস্তা বন্ধ করে সমাবেশ করছে, আর বিরোধীদল অনুমতি নিয়ে সমাবেশ করতে পারে না। এভাবে একটি দেশ চলতে পারে না। এরজন্য সচেতন সকল রাজনৈতিক দল এবং জনগণকে রাজপথে নামতে হবে। ইতিমধ্যে আওয়ামী লীগ ও তাদের দোসররা ছাড়া সবাই এ সরকার পতন আন্দোলনে এক হচ্ছে। এ সরকার পতন এখন শুধু সময়ের ব্যাপার।

ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সদস্য সচিব রফিকুল আলম মজনুর সঞ্চালনায় পদযাত্রাপূর্ব সমাবেশে আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ বুলু, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিব, বিএনপি নেতা আবদুস সালাম আজাদ, আজিজুল বারী হেলাল, মীর সরাফত আলী সপু, নবী উল্লাহ নীব, সাইফুল আলম নীরব, মীর নেওয়াজ আলী, হাবিবুর রশীদ হাবিব, আনিসুর রহমান তালুকদার খোকন, তানভীর আহমেদ রবিন প্রমুখ।

মানবকণ্ঠ/আরএইচটি


poisha bazar