বিদেশিরা দুপক্ষেই সক্রিয়!

মাঠে টিকে থাকতে কূটনৈতিক যোগাযোগ বাড়াচ্ছে বিএনপি


  • অনলাইন ডেস্ক
  • ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৫:৩০

মজুমদার ইমরান: দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে ক‚টনৈতিক তৎপরতা জোরদার করছে বিএনপি। দলটি মনে করে একটি নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে আগামী জাতীয় নির্বাচন আয়োজনের দাবি আদায়ে আন্দোলনের পাশাপাশি আর্ন্তজাতিক সম্প্রদায়েরও সর্মথন প্রয়োজন। এজন্য আর্ন্তজাতিক সম্প্রদায়ের সহযোগিতা আদায়ে তৎপরতা বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

বিএনপি নেতারা জানিয়েছেন, দাবি আদায়ে রাজপথে যুগপৎ আন্দোলনের রূপরেখা চূড়ান্ত করার পাশাপাশি কূটনৈতিক তৎপরতা জোরদার করা হয়েছে। জানা গেছে, কূটনৈতিক তৎপরতা জোরদার করার জন্য বিভিন্ন কর্মকৌশল নির্ধারণ করা হয়েছে। বিএনপির কূটনৈতিক উইংয়ের সদস্যরা ছাড়াও দলের কয়েকজন সিনিয়র নেতা ঢাকায় নিযুক্ত বিভিন্ন দেশের কূটনীতিক ও দূতাবাসের কর্মকর্তারদের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রাখছেন।

একটি সূত্র জানায়, ঢাকায় নিযুক্ত বিভিন্ন দূতাবাসের কূটনীতিকদের বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের ওপর সারাদেশে হামলা-মামলা এবং পুলিশের গুলিতে নিহতের সুনির্দিষ্ট তথ্যসহ দেশের সার্বিক পরিস্থিতি অবহিত করার সিদ্ধান্তও নিয়েছে বিএনপি। সম্প্রতি জ্বালানি তেল ও  নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের মূল্যবৃদ্ধিসহ বিভিন্ন দাবিতে সারাদেশে কর্মসূচি পালন করতে গিয়ে পুলিশ এবং সরকার সর্মথকদের হামলার শিকার হচ্ছে বিএনপির নেতাকর্মীরা।

এ পর্যন্ত ভোলা, নারায়ণগঞ্জ ও সর্বশেষ মুন্সিগঞ্জে বিএনপির চারজন নেতাকর্মী নিহত হয়েছে। কর্মসূচি পালনে অব্যাহত হামলা, মামলার ঘটনাসমূহ ঢাকায় নিযুক্ত বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূতদের অবহিত করা হচ্ছে। এজন্য বিএনপির কূটনৈতিক উইংকে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। কূটনৈতিক তৎপরতা জোরদার করার অংশ হিসেবে সম্প্রতি ঢাকায় নিযুক্ত কানাডিয়ান দূতাবাসের পলিটিক্যাল কাউন্সিলর ব্রেড লি কোর্সের সঙ্গে বৈঠক করেছেন বিএনপির একটি প্রতিনিধি দল।

গত বৃহস্পতিবার সকালে রাজধানীর গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে প্রায় দুই ঘণ্টাব্যাপী ওই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এতে সারা দেশে বিরোধী দলের কর্মসূচিতে নেতাকর্মীদের ওপর মামলা-হামলা-নির্যাতন- গ্রেফতারের চিত্র তুলে ধরা হয়।

এ ছাড়াও সম্প্রতি নারায়ণগঞ্জ ও ভোলায় তিনজন নিহত ও চিকিৎসাধীন গুলিবিদ্ধ নেতাকর্মীদের বিষয়েও অবহিত করা হয়। একই সঙ্গে এসব ঘটনার বিবরনসহ লিখিতভাবেও একটি চিঠি দেন বিএনপি নেতারা। বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের নেতৃত্বে দলের পক্ষ থেকে বৈঠকে আরও অংশ নেন আন্তর্জাতিক সম্পর্কবিষয়ক কমিটির দুই সদস্য বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক শ্যামা ওবায়েদ ও নির্বাহী কমিটির সদস্য তাবিথ আউয়াল। এরআগে গত বুধবার ঢাকায় নিযুক্ত যুক্তরাজ্যের হাইকমিশনার রবার্ট চ্যাটার্টন ডিকসনের সঙ্গে বৈঠক করেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের নেতৃত্ব একটি প্রতিনিধি দল।

সর্বশেষ গত রোববার বিএনপির একটি উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধি দলের সঙ্গে বৈঠক করেছেন ঢাকায় নিযুক্ত জাপানের রাষ্ট্রদূত ইতো নাওকি। বৈঠকে বিএনপির প্রতিনিধি দলে ছিলেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক শ্যামা ওবায়েদ প্রমুখ। জানা গেছে, প্রায় আধঘন্টা বিএনপির প্রতিনিধি দলের সঙ্গে রুদ্বদ্বার বৈঠক করেছেন জাপানের রাষ্ট্রদূত।

জানা গেছে, বৈঠকে দুইদেশের স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয় ছাড়াও সমসাময়িক রাজনৈতিক বিষয়ে বিএনপি নেতাদের সঙ্গে আলোচনা হয় জাপানের রাষ্ট্রদূতের।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর মানবকণ্ঠকে বলেন, আমরা গণতান্ত্রিক একটি পরিবেশের জন্য আন্দোলন করছি। আমাদের দাবি একটি নিরপেক্ষ নির্বাচন। যেখানে জনগণ তাদের ভোটাধিকার নির্ভয়ে প্রয়োগ করতে পারবে। এজন্য আমরা দীর্ঘদিন ধরে রাজপথে আন্দোলন-সংগ্রাম করছি। আমাদের দলের নেতাকর্মীরা আন্দোলন করতে গিয়ে জীবন দিয়েছেন। সীমাহীন নির্যাতনের শিকার হচ্ছেন। বাংলাদেশের গণতন্ত্র পুনর’দ্ধারে আমরা আর্ন্তজাতিক বিশ্বের সহযোগিতা চাই। আমাদের বন্ধু প্রতীম বিদেশি রাষ্ট্রগুলোর সর্মথন চাই।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেন, কূটনৈতিকদের সঙ্গে বৈঠকে আমাদের স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিষয় ছাড়াও সমসাময়িক রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়েও আলোচনা হচ্ছে। এটি একটি চলমান প্রক্রিয়া। তিনি জানান, ঢাকায় নিযুক্ত বিভিন্ন কূটনৈতিক ও দূতাবাসের কর্মকর্তাদের সঙ্গে বিএনপির সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রয়েছে। ভবিষ্যতেও এটা অব্যাহত থাকবে।

মানবকণ্ঠ/এআই


poisha bazar