লোক দেখানো ধরপাকড়ে লাভ নেই: ডা. জাফরুল্লাহ


  • অনলাইন ডেস্ক
  • ১৫ অক্টোবর ২০২১, ১৮:৩৫

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেছেন, লোক দেখানো ধরপাকড় করে লাভ নেই। এতোগুলি পুলিশের মাঝখানে কী করে এমন ঘটনা ঘটতে পারে আমি জানি না। এটা আমাদের জন্য ন্যক্কারজনক, দুঃখ জনক।

শুক্রবার (১৫ অক্টোবর) দুপুর ১২টার দিকে কুমিল্লার নানুয়া দিঘীর পাড়ের পূজামণ্ডপ পরিদর্শনে গিয়ে এ মন্তব্য করেন তিনি।

ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, সরকার পদত্যাগের মাধ্যমে এ ধরণের ঘটনার পুনরাবৃত্তি বন্ধ করা যাবে। নিয়ম অনুসারে আজ প্রতিমা বিসর্জন দিন। তার আগে অন্যরা বিসর্জন দিবে এটা হতে পারে না। এটা মাহা অন্যায়। এটা সরকারের ব্যর্থতা, আমাদেরও ব্যর্থতা।

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা বলেন, পুলিশ দিয়ে মসজিদ-মন্দির পাহারা দিতে হয় না। মানুষের মনকে পিষিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করা হচ্ছে। আমি মনে করি এ কারণেই সরকারের পদত্যাগ করা উচিত। তবেই সত্যিকার অর্থে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করতে হবে।

আলেমদের প্রতি অনুরোধ জানিয়ে জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, প্রত্যেকটা মসজিদে আযান, খুতবার ও নামাজের পরে সবাইকে আহ্বান করুন ইসলামের কোথায়ও অন্য ধর্মাবলম্বীদের গায়ে হাত দেওয়া এবং পূজামণ্ডপ ভাঙার অধিকার নাই। আমরা কেউ যেন এধরনের কাজ না করি।

এ সময় গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়কারী জোনায়েদ সাকি, ভাসানী অনুসারী পরিষদের মহাসচিব শেখ রফিকুল ইসলাম বাবলু, মুক্তিযোদ্ধা নঈম জাহাঙ্গীর, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রেস উপদেষ্টা জাহাঙ্গীর আলম মিন্টু, ভাসানী অনুসারী পরিষদের ডা. নূরুজ্জামান, কুমিল্লা গণসংহতি আন্দোলনের আহ্বায়ক ইমরান জুলকারনাইন ইমন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।


poisha bazar

ads
ads