দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতিতে জনদূর্ভোগ চরমে উঠেছে: জিএম কাদের


  • নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৭:২০,  আপডেট: ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৭:২৯

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান সংসদের বিরোধী দলীয় উপনেতা জনবন্ধু গোলাম মোহাম্মদ কাদের দেশে দ্রব্যমূল্যের ক্রমবর্ধমান ঊর্ধ্বগিততে প্রতিবাদ জানিয়ে বলেছেন, অযৌক্তিকভাবে নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিষ-পত্রের মূল্য বাড়িয়ে জন দূর্ভোগ চরম পর্যায়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, একদিকে করোনার অজুহাতে চাকরিজীবীদের বেতন অর্ধেক কমিয়ে দিয়ে তাদের জীবিকা নির্বাহের পথ দূর্বিষহ করে তোলা হয়েছে। আবার বেকারত্ব নিয়েও তামাশা করা হচ্ছে। উচ্চ শিক্ষিত যুবকেরা স্বউদ্যোগে কাজ করে বেঁচে থাকার চেষ্টা করতে গিয়েও হয়রানির শিকার হচ্ছে। নিজের উপায়ের মাধ্যম মোটর সাইকেলে আগুন ধরিয়ে পুড়িয়ে ফেলার মতো প্রতিবাদ আমাদের বিবেককে আহত করেছে।

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জনাব জিএম কাদের আজ মঙ্গলবার তাঁর বনানীস্থ কার্যালয়ের মিলনায়তনে কুড়িগ্রামের বিশিষ্ট সমাজসেবক ও ব্যবসায়ী প্রকৌশলী মোঃ সাইফুর রহমান সরকার আনুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় পার্টিতে যোগদান অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখছিলেন।

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জনবন্ধু জিএম কাদের পার্টিতে যোগদানকারী প্রকৌশলী মোঃ সাইফুর রহমান সরকারকে স্বাগত জানিয়ে বলেন, দেশের বর্তমান পরিস্থিতিতে তিনি এক সময়োপযোগী সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। দেশে এখন বি-রাজনৈতিক প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। ভোট দেয়া থেকে জনগণ মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে। রাজনৈতিক দল হারিয়ে যেতে বসেছে। কিন্তু দেশের মানুষ জাতীয় পার্টির স্বর্নোজ্বল দিনের কথা মনে রেখেছে। জাতীয় পার্টির ভাবমূর্তি জনগণের কাছে আরো উজ্জ্বল হয়ে উঠেছে। তাই আলোকিত মানুষেরা জাতীয় পার্টির পতাকাতলে সমবেত হতে চায়। তারই ধারাবাহিকতায় এই যোগদান অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

তিনি বলেন, যাদের হাতে দেশের মানুষের দায়িত্ব অর্পিত হয়েছে তারা সঠিকভাবে দায়িত্ব পালন করলে মানুষকে এভাবে দূর্ভোগের মধ্যে দিন যাপন করতে হতো না। জনাব জিএম কাদের নিজের অভিজ্ঞতার কথা স্মরণ করে বলেন, আমিও বাণিজ্য মন্ত্রী ছিলাম। কোনোভাবে দ্রব্যমূল্য বাড়তে দেইনি। বরং অনেক পণ্যের মূল্য কমিয়ে আনতে সক্ষম হয়েছি। এখন দেশে বেকারত্ব দুর্বিষহ পর্যায়ে চলে গেছে। করোনার কারণে মানুষের আয় উপার্জন কমে গেছে- তার উপর অস্বাভাবিক দ্রব্যমূল্য মানুষকে নাস্তানাবুদ করে তুলেছে। এই অবস্থা থেকে উত্তরণের জন্য সরকারকে কার্যকরী দায়িত্ব পালন করতে হবে।

কুড়িগ্রাম জেলা জাতীয় পার্টির আহ্বায়ক ও চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা পনির উদ্দিন আহমেদ এমপির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন প্রেসিডিয়াম সদস্য সুনীল শুভরায়, মীর আব্দুস সবুর আসুদ, এডভোকেট মোঃ রেজাউল ইসলাম ভূঁইয়া এবং যোগদানকারী প্রকৌশলী মোঃ সাইফুল রহমান সরকার। এছাড়াও অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা জহিরুল আলম রুবেল, দফতর সম্পাদক-২ এমএ রাজ্জাক খান, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক জহিরুল ইসলাম মিন্টু, সমাজ কল্যাণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা, যুগ্ম দফতর সম্পাদক মাহমুদ আলম, কেন্দ্রীয় মোমেনা বেগম, জায়েদুল ইসলাম জাহিদ, সোলায়মান সামি, সাইফুল ইসলাম শোভন, ইঞ্জিনিয়ার এলাহান উদ্দিন, আলমগীর হোসেন, ছাত্রসমাজের অর্ণব, সুজন, মোসলেম মিয়াজি।

মানবকণ্ঠ/এমএ


poisha bazar

ads
ads