আইন মন্ত্রণালয়ের মতামত বেআইনি: খালেদার আইনজীবী

- ফাইল ছবি

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ০৯ মে ২০২১, ২১:৩৫,  আপডেট: ০৯ মে ২০২১, ২১:২৯

চিকিৎসার জন্য বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়াকে বিদেশে নেয়ার আবেদনের বিষয়ে আইন মন্ত্রণালয়ের দেয়া মতামতকে বেআইনি বলে মন্তব্য করেছেন তার আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেন। তিনি এও বলেছেন, খালেদা জিয়ার কোনো অঘটন ঘটে গেলে তার দায়ভার সরকারকেই নিতে হবে।

রোববার (৯ মে) সন্ধ্যায় গণমাধ্যমে পাঠানো এক ভিডিও বার্তায় তিনি এসব কথা বলেন।

খন্দকার মাহবুব হোসেন বলেন, সরকার বেগম খালেদা জিয়াকে চিকিৎসার জন্য বিদেশে যাওয়ার অনুমতি প্রত্যাখ্যান করেছেন। তারা বলেছেন, আইনের কোনো বিধান নেই। কোনো সাজাপ্রাপ্ত আসামিকে বিদেশে চিকিৎসা নিতে যেতে দেয়া হবে না। ৪০১ ধারাটা ফৌজদারি কার্যবিধির একটা ব্যাপক আইন। সেখানে নির্বাহী কর্তৃপক্ষকে ক্ষমতা দেয়া হয়েছে। যেকোনো সাজাপ্রাপ্ত ব্যক্তিকে নির্বাহী আদেশে মওকুফ করা যাবে, কমানো যাবে। উইথ কন্ডিশন অর্থাৎ শর্তসাপেক্ষে অথবা শর্তবিহীন।

তিনি বলেন, চিকিৎসার জন্য তাকে (খালেদা জিয়া) বিদেশে যেতে দেয়া হবে না, এটা সম্পূর্ণভাবে বেআইনি। আমি মনে করি ম্যাডাম খালেদা জিয়া অত্যন্ত জনপ্রিয় নেত্রী, তিন তিন বারের প্রধানমন্ত্রী। সরকারের এই দায়ভারটা নেয়া উচিত হবে না। যদি একটা অঘটন ঘটে এর সম্পূর্ণ দায়িত্ব সরকারকে নিতে হবে।

খালেদা জিয়ার আইনজীবী বলেন, খালেদা জিয়াকে জেল থেকে বের করা হয়েছিল তার সাজা স্থগিত করে চিকিৎসার জন্যে। সেই চিকিৎসার সুযোগ তিনি পাননি। এখন তার অবস্থা অত্যন্ত জটিল বলে আমরা জানতে পেরেছি। সেক্ষেত্রে সরকার আইনের বিধান নেই— এই যে কথাটা বলছেন, ৪০১ ধারায় ফৌজদারি কার্যবিধির, এটা সঠিক না।

এই জ্যেষ্ঠ আইনজীবী বলেন, আইনের ব্যাখ্যাটা একটু মানবিকভাবে করতে হবে এবং ওখানে কোনো খানে লেখা নেই— সাজাপ্রাপ্ত আসামিরা বিদেশে চিকিৎসার জন্য যেতে পারবে না। এরকম কোনো বক্তব্য নেই, এটা ওয়াইড পাওয়ার, ব্যাপক ক্ষমতা।

মানবকণ্ঠ/এসকে


poisha bazar

ads
ads