আমৃত্যু অন্যায়-অপরাজনীতির বিরুদ্ধে কথা বলে যাব: কাদের মির্জা

আবদুল কাদের মির্জা - ফাইল ছবি

poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ১৬ জানুয়ারি ২০২১, ২০:০৬

পৌরসভার নির্বাচন সুষ্ঠু হওয়া নিয়ে সংশয় প্রকাশ করাসহ নানা অভিযোগ তুলে সম্প্রতি আলোচিত আবদুল কাদের মির্জা নোয়াখালীর বসুরহাট পৌরসভায় মেয়র পদে পুনর্নির্বাচিত হয়েছেন।

শনিবার (১৬ জানুয়ারি) অনুষ্ঠিত এই নির্বাচনের ফল ঘোষণার পর তিনি বলেন, ‘অপরাজনীতির’ বিরুদ্ধে তিনি আগের মতোই কথা বলে যাবেন।

ইভিএমে অনুষ্ঠিত এই নির্বাচনে ভোটগ্রহণ শেষ হওয়ার ঘণ্টাখানেকের মধ্যে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তন থেকে ফল ঘোষণা করেন রিটার্নিং কর্মকর্তা রবিউল আলম।

তাতে দেখা যায়, নৌকা প্রতীকে কাদের মির্জা পেয়েছেন ১০ হাজার ৭৩৮ ভোট।

তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপি প্রার্থী কামাল উদ্দিন চৌধুরী ধানের শীষ প্রতীকে পেয়েছেন ১ হাজার ৭৭৮ ভোট। অন্যদিকে স্বতন্ত্র প্রার্থী জামায়াতে ইসলামীর নেতা মোশারফ হোসেন মোবাইল প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ১ হাজার ৪৫১ ভোট ।

কোনো গোলযোগ ছাড়াই এই পৌরসভায় ভোটগ্রহণ হয়। ২১ হাজার ১১৫ ভোটারের এই পৌরসভায় কেন্দ্রে ভোটারদের উপস্থিতিও ছিল ব্যাপক। বিশেষ করে নারী ভোটারদের দীর্ঘ সারি দেখা গেছে কেন্দ্রগুলোতে।

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের ভাই কাদের মির্জা কয়েক দফায় বসুরহাট পৌরসভার মেয়রের দায়িত্বে রয়েছেন। ওবায়দুল কাদেরের সংসদীয় আসনও এটি।

এবার পৌর নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেলেও আকস্মিকভাবে দলের এক দল নেতাদের অভিযোগের কাঠগড়ায় দাঁড় করান মির্জা কাদের।

একের পর এক পথসভায় কয়েকজন সংসদ সদস্যের বিরুদ্ধে তার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের অভিযোগ তোলেন তিনি। ভাইকেও ছেড়ে কথা বলেননি কাদের মির্জা।

সংসদ নির্বাচন নিয়ে তার বক্তব্য জাতীয় রাজনীতিতে বিরোধী দলগুলো অনিয়মের নজির হিসেবে তুলে ধরলে জাতীয় অঙ্গনেও আলোচনায় আসেন তিনি।

ফল ঘোষণার পর সমর্থকদের নিয়ে বসুরহাট রূপালী চত্বরে তাৎক্ষণিক বিজয় সমাবেশ করে সবাইকে ধন্যবাদ জানানোর পাশাপাশি সেই প্রসঙ্গেও কথা বলেন কাদের মির্জা।

তিনি বলেন, “আজকের এ বিজয় অন্যায়-অবিচার জুলুমের বিরুদ্ধে ন্যায় প্রতিষ্ঠার বিজয়। বাঙালি জাতির স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শের বিজয়, এ বিজয় জননেত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নের বিজয়। এ বিজয় জননেতা ওবায়দুল কাদেরের উন্নয়নের বিজয়।”

তিনি বলেন, “আমি আমৃত্যু অন্যায়, অবিচার, অপরাজনীতির বিরুদ্ধে কথা বলে যাব। যে সকল ওয়াদা আপনাদের সাথে করেছি, জীবনের শেষ রক্তবিন্দু দিয়ে হলেও তা পূরণ করব।”

কাদের মির্জা তার প্রতিদ্বন্দ্বী দুই প্রার্থীসহ ভোট সংশ্লিষ্ট প্রশাসনিক কর্মকর্তা, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য এবং গণমাধ্যমকর্মীদের ধন্যবাদ জানান।

এবারের ভোট সুষ্ঠু হয়েছে দাবি করে আগামী অন্য সব নির্বাচনও এমন হবে বলে প্রত্যাশা করেন তিনি।

মানবকণ্ঠ/আইএইচ






ads
ads