‘ভাস্কর্য ষড়যন্ত্র’ প্রতিহত করার ঘোষণা মৎস্যজীবী লীগের


poisha bazar

  • নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ২৯ নভেম্বর ২০২০, ১৫:০৮

বাংলাদেশ আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগকে আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠন হিসেবে স্বীকৃতির এক বছর পূর্তিতে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ এবং বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যসহ বিভিন্ন ভাস্কর্য অপসারণের জন্য হেফাজতে ইসলামের হুমকির প্রতিবাদে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা হাজী মো. সায়ীদুর রহমান, কার্যকরী সভাপতি মো. সাইফুল আলম মানিক ও সাধারণ সম্পাদক লায়ন শেখ আজগর নস্করের নেতৃত্বে রোববার (২৯ নভেম্বর) ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন নেতৃবৃন্দ।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্যসহ বিভিন্ন ভাস্কর্য অপসারণের দাবিতে হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম-মহাসচিব মাওঃ মামুনুল হকের হুমকির প্রতিবাদে সকালে ধানমন্ডির রাসেল স্কয়ারের সামনে মানববন্ধন করেছে।

মানববন্ধনে নেতৃবৃন্দ বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বাংলাদেশে ধর্মান্ধ এবং সাম্প্রদায়িকতার কোন স্থান নেই। বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য মানেই হলো- মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে স্মরণ করিয়ে দেয়া এবং স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতিকে স্বীকার করে নেয়া। মামুনুল হক হয়তো জেনেও না জানার ভান করেছেন। কারণ তুরস্ক, ইরান, মিশরেও ভাস্কর্য আছে। মামুনুল হক জামায়াত-তালেবান গোষ্ঠীর প্রতিনিধি বিধায় বাংলাদেশকে অকার্যকর রাষ্ট্রে পরিণত করতে চান তিনি। স্বাধীনতাবিরোধী চক্ররা কোনো ইস্যু না পেয়ে জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে এখন সারা বাংলাদেশের ভাস্কর্য উপড়ে ফেলার জন্য যে ষড়যন্ত্র করছে, তা বাংলাদেশ আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগের প্রতিটি নেতা-কর্মী রাজপথে প্রতিহত করবে।

কর্মসূচিতে আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগ কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি আবুল বাশার, আব্দুল গফুর চোকদার, মুহাম্মদ আলম, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মো. আব্দুল আলিম, রফিকুল ইসলাম খা, ফিরোজ আহম্মেদ তালুকদার, প্রচার সম্পাদক মো. শফিউল আলম শফিক, দপ্তর সম্পাদক এম.এইচ এনামুল হক রাজু প্রমুখ।

মানবকণ্ঠ/এনএস






ads