ঢাকা-৫ উপনির্বাচন প্রত্যাখান করে ফের নির্বাচনের দাবি জাপা প্রার্থীর

ঢাকা-৫ উপনির্বাচন প্রত্যাখান করে ফের নির্বাচনের দাবি জাপা প্রার্থীর   নিজস্ব প্রতিবেদক   ঢাকা-৫ উপনির্বাচনের ফলাফল প্রত্যাখান করে ফের নির্বাচনের দাবি জানিয়েছেন লাঙ্গলের প্রার্থী ও জাপার প্রেসিডিয়াম সদস্য মীর আব্দুস সবুর আসুদ। তিনি আজ সোমবার বিকেলে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি মিলনায়তনে এক সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি জানান।  এসময় আসুদ অভিযোগ করে বলেন, ১৭ অক্টোবর ঢাকা-৫ উপনির্বাচনে নির্বাচনের নামে প্রহসন করা হয়েছে। ভোট কেন্দ্রে আমাদের কোনো পোলিং এজেন্ট ঢুকতে দেয়া হয়নি, আর যারা ঢুকেছিল তাদেরকেও বের করে দেয়া হয়েছে। সাধারণ ভোটারতো দুরের কথা আমাদের কোনো এজেন্টদেরকেও ভোট দিতে দেননি সরকার সমর্থিত সন্ত্রাসী  কিশোরগ্যাংরা। এরা সরকারী প্রশয়ে প্রতিটি কেন্দ্র দখল করে রেখেছিলো। পুলিশ প্রশাসনতা দেখেও কোনো ভুমিকা নেননি।  সেদিন আমাদের সকল কর্মীদের জীবন ছিলো হুমকির মুখে।   আসুদ বলেন, বর্তমান পরিবেশে কোনো সভ্য ও ভদ্র মানুষের পক্ষে নির্বাচন করা অসম্ভব হয়ে পড়েছে। আমাদের কর্মীদের উপর অত্যাচার এখনও অব্যাহত রয়েছে।   বর্তমান নির্বাচন কমিশনের নিয়ন্ত্রণে সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয় উল্লেখ করে জাপার এই নেতা বলেন, এ নির্বাচন বাতিল করার দাবি জানিয়ে ইতিমধ্যে আমি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছি। নির্বাচন চলাকালীন সময়েও বিভিন্ন অনিয়ম ও সরকার সমর্থকদের নির্বাচনী প্রচারণার বাধা দেয়ার অভিযোগ জানিয়েছিলাম। কোনো কর্ণপাত করেননি। অথচ ইসি বলেন কোনো অভিযোগ পাননি। উল্টো ইসি বলেন নির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছে। এটা সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ মিথ্যাচার।   আসুদ বলেন, নির্বাচন কমিশন ও দুদক স্বাধীন সংস্থা হলেও এরা সরকারের সুপারিশেই নিয়োগপ্রাপ্ত হন। তাই সরকার এই দায়িত্ব এড়াতে পারে না। সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমাদের পার্টির যেসকল নেতা লাঙ্গলের পক্ষে প্রচারণায় অংশ নেননি এবং অন্য প্রার্থীর পক্ষে প্রচারণায় অংশ নিয়েছেন তাদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়ার জন্য জাপা চেয়ারম্যানকে সুপারিশ করা হয়েছে।  সংবাদ সম্মেলনে জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য হাজী সাইফুদ্দিন আহমেদ মিলন, ভাইস চেয়ারম্যান আরিফুর রহমান খান, সাংগঠনিক সম্পাদক আমির উদ্দিন ঢালু, ফখরুল আহসান শাহাজাদা, শাহ আলম তালুকদারসহ জাপার বিপুলসংখ্যক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।  মানবকণ্ঠ/এইচকে
- ছবি: প্রতিবেদক

poisha bazar

  • নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ১৯ অক্টোবর ২০২০, ১৭:২১

ঢাকা-৫ উপনির্বাচনের ফলাফল প্রত্যাখান করে ফের নির্বাচনের দাবি জানিয়েছেন লাঙ্গলের প্রার্থী ও জাপার প্রেসিডিয়াম সদস্য মীর আব্দুস সবুর আসুদ। তিনি আজ সোমবার বিকেলে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি মিলনায়তনে এক সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি জানান।

এসময় আসুদ অভিযোগ করে বলেন, ১৭ অক্টোবর ঢাকা-৫ উপনির্বাচনে নির্বাচনের নামে প্রহসন করা হয়েছে। ভোট কেন্দ্রে আমাদের কোনো পোলিং এজেন্ট ঢুকতে দেয়া হয়নি, আর যারা ঢুকেছিল তাদেরকেও বের করে দেয়া হয়েছে। সাধারণ ভোটারতো দুরের কথা আমাদের কোনো এজেন্টদেরকেও ভোট দিতে দেননি সরকার সমর্থিত সন্ত্রাসী কিশোরগ্যাংরা। এরা সরকারী প্রশয়ে প্রতিটি কেন্দ্র দখল করে রেখেছিলো। পুলিশ প্রশাসনতা দেখেও কোনো ভুমিকা নেননি। সেদিন আমাদের সকল কর্মীদের জীবন ছিলো হুমকির মুখে।

আসুদ বলেন, বর্তমান পরিবেশে কোনো সভ্য ও ভদ্র মানুষের পক্ষে নির্বাচন করা অসম্ভব হয়ে পড়েছে। আমাদের কর্মীদের উপর অত্যাচার এখনও অব্যাহত রয়েছে।

বর্তমান নির্বাচন কমিশনের নিয়ন্ত্রণে সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয় উল্লেখ করে জাপার এই নেতা বলেন, এ নির্বাচন বাতিল করার দাবি জানিয়ে ইতিমধ্যে আমি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছি। নির্বাচন চলাকালীন সময়েও বিভিন্ন অনিয়ম ও সরকার সমর্থকদের নির্বাচনী প্রচারণার বাধা দেয়ার অভিযোগ জানিয়েছিলাম। কোনো কর্ণপাত করেননি। অথচ ইসি বলেন কোনো অভিযোগ পাননি। উল্টো ইসি বলেন নির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছে। এটা সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ মিথ্যাচার।

আসুদ বলেন, নির্বাচন কমিশন ও দুদক স্বাধীন সংস্থা হলেও এরা সরকারের সুপারিশেই নিয়োগপ্রাপ্ত হন। তাই সরকার এই দায়িত্ব এড়াতে পারে না। সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমাদের পার্টির যেসকল নেতা লাঙ্গলের পক্ষে প্রচারণায় অংশ নেননি এবং অন্য প্রার্থীর পক্ষে প্রচারণায় অংশ নিয়েছেন তাদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়ার জন্য জাপা চেয়ারম্যানকে সুপারিশ করা হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য হাজী সাইফুদ্দিন আহমেদ মিলন, ভাইস চেয়ারম্যান আরিফুর রহমান খান, সাংগঠনিক সম্পাদক আমির উদ্দিন ঢালু, ফখরুল আহসান শাহাজাদা, শাহ আলম তালুকদারসহ জাপার বিপুলসংখ্যক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

মানবকণ্ঠ/এইচকে






ads