ছাত্র অধিকার পরিষদ থেকে ধর্ষণে অভিযুক্ত মামুনকে অব্যাহতি

ছাত্র অধিকার পরিষদ থেকে ধর্ষণে অভিযুক্ত মামুনকে অব্যাহতি
- ফাইল ছবি

poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ২১:৩৬

ধর্ষণের অভিযোগ ওঠায় ছাত্র অধিকার পরিষদের আহ্বায়ক হাসান আল মামুনকে সংগঠন থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে বলে পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক মুহাম্মদ রাশেদ খাঁন স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

বুধবার সন্ধ্যায় ওই প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, হাসান আল মামুনকে সাময়িক অব্যাহতি দিয়ে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে ছাত্র অধিকার পরিষদ। কমিটিকে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন প্রদানের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তদন্ত কমিটির সদস্যরা হলেন- ছাত্র অধিকার পরিষদের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি বিন ইয়ামিন মোল্লা, কেন্দ্রীয় পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক তারেক রহমান এবং রাফিয়া সুলতানা।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, গত রোববার ও সোমবার ছাত্র অধিকার পরিষদের আহ্বায়ক হাসান আল মামুনসহ চার নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও ধর্ষণে সহযোগিতার অভিযোগে লালবাগ ও কোতোয়ালী থানায় মামলা হয়েছে। সংগঠনের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগের সত্যতা নিরূপণে এবং সুষ্ঠু ও ন্যায় বিচারের স্বার্থে তিন সদস্যবিশিষ্ট একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে।

এতে বলা হয়, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ তদন্তের স্বার্থে পরিষদের আহ্বায়ক হাসান আল মামুনকে দায়িত্ব থেকে সাময়িক অব্যাহতি প্রদান করা হয়েছে।

এর আগে গত ২১ ও ২২ সেপ্টেম্বর ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুর, ছাত্র অধিকার পরিষদের আহ্বায়ক হাসান আল মামুনসহ ছয় জনের বিরুদ্ধে ধর্ষণ, ধর্ষণে সহযোগিতা এবং বিভিন্ন সময়ে ভয়ভীতি দেখানোর অভিযোগ এনে রাজধানীর লালবাগ ও কোতোয়ালী থানায় মামলা করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়েরর একজন শিক্ষার্থী। মামলার বাদী বলেন, একই বিভাগে পড়া এবং ছাত্র অধিকার পরিষদের কাজে থাকার কারণে হাসান আল মামুনের সঙ্গে তার ‘প্রেমের সম্পর্ক’ গড়ে ওঠে। এর সুযোগ নিয়ে মামুন চলতি বছরের ৩ জানুয়ারি তার লালবাগের বাসায় নিয়ে তাকে ‘ধর্ষণ’ করেন।

মানবকণ্ঠ/এইচকে





ads







Loading...