দোকানপাট খুলে সংক্রমণের পথ আরও সুগম করে দিল: ফখরুল

দোকানপাট খুলে সংক্রমণের পথ আরও সুগম করে দিল: ফখরুল
দোকানপাট খুলে সংক্রমণের পথ আরও সুগম করে দিল: ফখরুল - ফাইল ছবি

poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ০৫ মে ২০২০, ১৬:০৭

শপিংমল-দোকানপাট খুলে দেওয়ায় সরকারের সমালোচনা করে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল বলেছেন, রমজান ও ঈদের কথা বলে ১০ মে থেকে দোকানপাট খুলে দিচ্ছে সরকার। এতে করোনার পিক পয়েন্টে এসে সরকার পুনরায় সামাজিক সংক্রমণের পথ আরও সুগম করে দিল। গার্মেন্ট সেক্টরে সৃষ্ট ঝুঁকির সঙ্গে দোকানপাট খুলে দেওয়ার ফলে সম্ভাব্য ঝুঁকি অগ্নিতে ঘৃতাহুতির মত কাজ করবে।

মঙ্গলবার (৫ মে) গুলশানে বিএনপি চেয়ারপার্সনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এসব কথা বলেন।

এদিন বিএনপির পক্ষ থেকে ফখরুল করোনা পরিস্থিতিতে দিনমজুরদের মাসে পাঁচ হাজার টাকা করে প্রাথমিকভাবে তিন মাসে জনপ্রতি ১৫ হাজার টাকা নগদ সাহায্য দিতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানান। একইসঙ্গে তিনি নগদ অর্থ, ত্রাণ বিতরণ এবং ধান ক্রয় সামরিক বাহিনীর মাধ্যমে করানোর আহ্বান জানান।

মির্জা ফখরুল বলেন, করোনা থেকে বাঁচতে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করার লক্ষ্যে দিন আনে দিন খায় এ শ্রেণির মানুষের মাসে পাঁচ হাজার টাকা হারে প্রাথমিকভাবে তিন মাসে জনপ্রতি ১৫ হাজার টাকা নগদ সাহায্য-সহায়তা সামরিক বাহিনীর মাধ্যমে পৌঁছানো নিশ্চিত করতেই হবে।এছাড়া কর্মহীন ও ছিন্নমূল মানুষের জন্য অস্থায়ী আশ্রয়কেন্দ্র ও রান্না করা খাবার বিতরণের ব্যবস্থা করতে হবে। কোনোভাবেই রাজনৈতিক দলের সদস্যদের এ কাজে সম্পৃক্ত করা যাবে না।

ত্রাণ বিতরণে অনিয়মের অভিযোগ তুলে তিনি বলেন, বর্তমানে ত্রাণ চুরি এবং স্বাস্থ্য খাতের দুর্নীতিকে মানবতাবিরোধী অপরাধ হিসেবে চিহ্নিত করে দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করতে হবে।

এছাড়া বিএনপি মহাসচিব দেশের অর্থনীতির চাকা সচল রাখতে প্রখ্যাত অর্থনীতিবিদ সমন্বেয়ে একটি ট্রাস্কফোর্স গঠনের আহ্বান জানান। একইসঙ্গে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ৬ মাসের বেতন দেয়ারও দাবি জানান।

মানবকণ্ঠ/এসকে






ads