এবার পশ্চিমবঙ্গেও সিএএ বিরোধী প্রস্তাব পাস, চাপে মোদি

এবার পশ্চিমবঙ্গেও সিএএ বিরোধী প্রস্তাব পাস, চাপে মোদি
- ফাইল ছবি

poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ২৭ জানুয়ারি ২০২০, ১৮:৩০

ভারতের কেরালা, পাঞ্জাব ও রাজস্থানের পর এবার পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভায়ও পাস হলো সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (সিএএ) বিরোধী প্রস্তাব।

সোমবার (২৭ জানুয়ারি) তৃনমূল কংগ্রেস মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় সিএএ বিরোধী একটি প্রস্তাব উত্থাপন করেন। ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস ও বাম দলগুলোর সমর্থনে কেন্দ্রীয় সরকারের বিরোধীতা করে প্রস্তাবটি গৃহীত হয়।

গতকালই সব রাজনৈতিক দলকে এ প্রস্তাব সমর্থনের অনুরোধ জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। তবে সিএএ বাতিলের প্রস্তাবে সংশোধনীর দাবি জানিয়েছে বিরোধীরা।

এদিন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বলেন, আমাদের রাজ্যে সিএএ, এনআরসি আর এনপিআর করার অনুমতি দেবো না। মানুষ আতঙ্কে আছেন। সব ধরণের নথির জন্য লাইনে দাঁড়িয়ে হয়রান হচ্ছেন।  এই লড়াই শুধু সংখ্যালঘুদের না। আমার হিন্দু ভাই-বোনেদের কাছে আমি কৃতজ্ঞ, তারা সামনে থেকে এই লড়াইটা লড়ছেন। পাশাপাশি শান্তিপূর্ণ আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ারও ঘোষণা দেন তিনি।

এর আগে শনিবার কেরালা, পাঞ্জাবের পর তৃতীয় রাজ্য হিসেবে বিতর্কিত নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে প্রস্তাব পাস করেছে রাজস্থান। সোমবার ভারতের চতুর্থ রাজ্য হিসেবে আইনটির বিরুদ্ধে বিধানসভায় প্রস্তাব পাস করল পশ্চিমবঙ্গ। পরপর চারটি রাজ্যে এভাবে নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে প্রস্তাব পাস হওয়ায় আইনটি বাস্তবায়নে চাপের মুখে পড়ল নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বাধীন হিন্দুত্ববাদী বিজেপি সরকার।

গত ডিসেম্বরে ভারতের রাজ্যসভা ও লোকসভায় পাস হয় সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন।  উগ্র হিন্দুত্ববাদী বিজেপির প্রণিত আইনটিকে বৈষম্যমূলক অ্যাখ্যা দিয়ে গত কয়েক মাস ধরেই ভারতজুড়ে তুমুল বিক্ষোভ চলছে। কংগ্রেসসহ বেশিরভাগ বিরোধীদলই আইনটির বিপক্ষে অবস্থান নিয়েছে। শুরু থেকেই সিএএ বিরোধী আন্দোলন চালিয়ে আসছেন মমতা। সিএএ নিয়ে আপত্তির কথা সরাসরি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকেও জানিয়েছেন তিনি।

মানবকণ্ঠ/এসকে





ads







Loading...