খুলনায় আ.লীগের তৃণমূল নেতাকর্মীদের প্রযুক্তি প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত

মানবকণ্ঠ
খুলনায় আ.লীগের নেতাকর্মীদের প্রযুক্তি প্রশিক্ষণ - মানবকণ্ঠ।

poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ১৮ নভেম্বর ২০১৯, ১৮:৪৫,  আপডেট: ১৮ নভেম্বর ২০১৯, ১৯:০৪

ডিজিটাল প্লাটফর্মে তৃণমূল পর্যায়ের নেতাকর্মীদের কর্মদক্ষতা বাড়াতে ও দলীয় কার্যক্রমে পুরোমাত্রায় সক্রিয় করতে আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক উপকমিটির উদ্যোগে বিভাগীয় কর্মশালার খুলনা পর্ব অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার (১৮ নভেম্বর) বিকালে খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (কুয়েট) মিলনায়তনে ‘কর্মদক্ষতা বৃদ্ধিতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম’ শীর্ষক বিভাগীয় কর্মশালাটি আয়োজন করে আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক উপকমিটি।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক। প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, ২০০৮ সালের নির্বাচনি ইশতিহারে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ডিজিটাল বাংলাদেশের কথা বলেছিলেন। তখন অনেকেই অনেক কথা বলেছিল। অনেকে ঠাট্টা করেছিল। কিন্তু বাংলাদেশ এখন সত্যিই ডিজিটালে পরিণত হয়েছে। বাংলাদেশে এখন এমন কোন সেক্টর নাই যেখানে ডিজিটাল হয়নি।

তালুকদার আব্দুল খালেক বলেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের অপব্যবহার করে একটা শ্রেণিকে প্রায়ই গুজব ছড়াতে দেখা যায়। তাদের ছড়ানো গুজবের কারণে দেশে কিছু 'অবাঞ্ছনীয়' ঘটনা ঘটতে দেখা গেছে। তাই গুজবের বিরুদ্ধে আমাদের নেতাকর্মীদের শক্ত অবস্থান নিতে হবে। ফেসবুক যেন ভালো কাজে ব্যবহৃত হয়, কোন অপপ্রচারের বাহন না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। প্রয়োজনে গুজব ছড়ানো কুচক্রী মহলকে ঠাণ্ডা মাথায় প্রতিহত করতে হবে।

বর্তমান সরকারের মিশন-ভিশন বাস্তবায়নে ছাত্রলীগকে এক সাথে কাজ করার আহ্বান জানিয়ে মেয়র বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের যেসব অসমাপ্ত কাজ রয়েছে তা বঙ্গবন্ধুকণ্যা বাস্তবায়ন করছেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশকে এক অনন্য উচ্চতায় নিয়ে যেতে চান। সেজন্য ছাত্রলীগকে ঐক্যবন্ধভাবে কাজ করতে হবে।

 

আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক উপকমিটির চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. মো. হোসেন মনসুরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক এবং উপকমিটির সদস্য সচিব প্রকৌশলী মো. আবদুস সবুর। তিনি বলেন, সচেতনতার অভাবে অনেক সময় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহারকারীরা কিছু ভুল করে থাকেন। সেই ভুলগুলোকে ইস্যু করে অপপ্রচার এবং সামাজিক শৃঙ্খলা নষ্ট করার চেষ্টা করে স্বাধীনতা বিরোধী ও জঙ্গিবাদের মূল পৃষ্ঠপোষক বিএনপি-জামায়াত। তাই এসব ব্যাপারে সবাইকে সচেতন থাকতে হবে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কুয়েটের উপাচার্য অধ্যাপক ড. কাজী সাজ্জাদ হোসেন। বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক উপকমিটির সদস্য প্রকৌশলী রনক আহসানের সঞ্চালনায় কর্মশালায় প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন কানাডিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ-এর উপাচার্য এবং আইইবি কম্পিউটার প্রকৌশল বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. প্রকৌশলী মোহাম্মদ মাহফুজুল ইসলাম, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য সুফি ফারুক ইবনে আবুবকর এবং সিআরআই কো-অর্ডিনেটর এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য প্রকৌশলী তন্ময় আহমেদ। এছাড়া খুলনা বিভাগের সকল ইউনিট আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদকসহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা কর্মশালায় অংশগ্রহণ করেন।

মানবকণ্ঠ/এইচকে




Loading...
ads





Loading...