ওয়ালটন এসি কিনে বিদ্যুৎ বিল ফ্রি পেলেন শিক্ষক-আইনজীবী



  • নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ১৪ মে ২০১৯, ১৪:২৩

দেশব্যাপী চলমান ডিজিটাল ক্যাম্পেইন সিজন-ফোর এ এসি কিনে ক্রেতারা পাচ্ছেন পুরো এক বছরের বিদ্যুৎ বিলের টাকা ফ্রি পাওয়ার সুযোগ। অর্থাৎ তার এক বছরের বিদ্যুৎ বিলের টাকা দিচ্ছে ওয়ালটন! এ অফারের আওতায় এবার কলেজ শিক্ষক ও আইনজীবীসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের অসংখ্য ক্রেতা পেয়েছেন এক বছরের বিদ্যুৎ বিল ফ্রি।

গত ৮ মে ওয়ালটন এসি কিনে ৫ জন ক্রেতা এক বছরের বিদ্যুৎ বিল ফ্রি পান। এই ভাগ্যবান ক্রেতারা হলেন-ঢাকার ইস্কাটন গার্ডেনের বাসিন্দা মঞ্জুরুল হক, চুয়াডাঙ্গার জীবননগরের কলেজ শিক্ষক ইউনুস আলি, বগুড়ার দুপচাটিয়া এলাকার ব্যবসায়ী মো ফেরদৌস আলম, বরিশাল শহরের সিমেন্টের ব্যবসায়ী শাহাদাত হোসেন শামিম এবং জয়পুরহাটের পাঁচবিবি থানার অ্যাডভোকেট শামসুল দুদু।

ইস্কাটন গার্ডেনের বাসিন্দা মঞ্জুরুল হক ৪৯ হাজার ৯০০ টাকায় ১.৫ টনের একটি ওয়ালটন এসি কেনেন রাজধানীর বাংলামোটরের ওয়ালটন প্লাজা থেকে। পণ্যটি কিনে রেজিস্ট্রেশন করতেই ওয়ালটন থেকে একটি এসএমএস আসে তার মোবাইলে। যার মাধ্যমে জানতে পারেন তিনি একজন ভাগ্যবান ক্রেতা। ওয়ালটন এসি কিনে তিনি ১ বছরের বিদ্যুৎ বিলের খরচ বাবদ ১৮ হাজার টাকা পেয়েছেন।

একই দিনে চুয়াডাঙ্গার জীবননগর ডিগ্রি কলেজের শিক্ষক ইউনুস আলি স্থানীয় ওয়ালটন প্লাজা থেকে ৬৩ হাজার ৫০০ টাকা দিয়ে ১.৫ টনের একটি এসি কিনে ডিজিটাল ক্যাম্পেইনের আওতায় এক বছরের বিদ্যুৎ বিল ফ্রি পান। গত ১০ মে তার হাতে বিদ্যুৎ বিল বাবদ ১৮ হাজার টাকা অনুষ্ঠানিকভাবে তুলে দেয়া হয়।

ওই দিনই বরিশালের সিমেন্ট ব্যবসায়ী শাহাদাত হোসেন শামিম নিকটস্থ ওয়ালটন প্লাজা থেকে ৭৪ হাজার ৯০০ টাকা দামের ২ টনের একটি এসি কিস্তি সুবিধায় কেনেন। তিনিও এক বছরের বিদ্যুৎ বিল বাবদ ২১ হাজার ৬০০ টাকা ফ্রি পান।

এক বছরের বিদ্যুৎ বিল ফ্রি পেয়ে যারপরনাই খুশি শাহাদাত হোসেন শামিম বলেন, আমি এসব অফারের কথা কিছুই জানতাম না আগে থেকে। ওয়ালটনের শোরুমে গিয়েই জানতে পারি। পরিবারের জন্য সবসময় ওয়ালটন পণ্যই কিনে থাকি। দেশীয় কোম্পানি হিসেবে ওয়ালটনের প্রতি আমার আলাদা টান রয়েছে। তাই এসি ছাড়াও বাসায় টিভি, ফ্রিজ ও আয়রণ ব্যবহার করছি যা ওয়ালটন থেকে কেনা।

বগুড়ার ‘মেলা ইলেক্ট্রনিক্সে’এর স্বত্বাধিকারী ওয়ালটনের পরিবেশক মো. আলম জানান, রমজানের আগে বেশি গরম আবহাওয়ার কারণে এমনিতেই এসির চাহিদা বেড়েছে। পাশাপাশি ওয়ালটনের ডিজিটাল ক্যাম্পেইন শুরু হওয়ায় বিক্রি বেড়েছে অনেকগুণ। ইতোমধ্যে আমার শোরুমে ওয়ালটনের ২০টি এসি ছিলো যার সবকটি বিক্রি হয়ে গেছে। চাহিদা বেড়ে যাওয়ায় আমি আরো কিছু সংখ্যক এসির অর্ডার করেছি। আশা করছি, ঈদ উপলক্ষে এসি বিক্রি আরো বহুগুণে বাড়বে।

ওয়ালটন কর্মকর্তারা জানান, এক বছরের বিদ্যুৎ বিল ছাড়াও ডিজিটাল ক্যাম্পেইনের আওতায় দেশের যেকোনো ওয়ালটন প্লাজা বা পরিবেশক শোরুম থেকে এসি কিনে ক্রেতারা পেতে পারেন সর্বোচ্চ এক লাখ টাকার ক্যাশ ভাউচারসহ ফ্রি ফ্রিজ, টিভি, ল্যাপটপসহ অসংখ্য হোম ও ইলেকট্রিক্যাল অ্যাপ্লায়েন্স।

একই সঙ্গে ‘এসি এক্সচেঞ্জ’ অফারের আওতায় ওয়ালটন প্লাজা ও শোরুমে যেকোনো ব্র্যান্ডের ব্যবহৃত পুরাতন এসি জমা দিয়ে ক্রেতারা ওয়ালটনের নতুন এসি কিনতে পারছেন। এক্ষেত্রে পুরনো এসি জমা দিলে গ্রাহক তার পছন্দকৃত নতুন ওয়ালটন এসির মূল্য থেকে ২৫ শতাংশ ছাড় পাচ্ছেন।

এ ছাড়া এয়ার কন্ডিশনার কিনে সেলফি তুলে ফেসবুকে পোস্ট কিংবা কলার টিউন সেট করলেই আকর্ষণীয় ক্যাশব্যাক দিচ্ছে ওয়ালটন। এসি কিনে সেলফি বা ছবি তুলে ফেসবুকে পোস্ট দিলে ৫০০ টাকা ক্যাশব্যাক পাবেন ক্রেতা। আর মোবাইলে ওয়ালটন এসির কলার টিউন সেট করলে মিলবে আরো ৫০০ টাকা।

মানবকণ্ঠ/এসএস



Loading...


Loading...