সমকামীদের ৫০ বছর উদযাপনে গুগল

সমকামীদের ৫০ বছর উদযাপনে গুগল
প্রাইড র‍্যালী - গুগল


শুরুটা ১৯৬৯ সালে। নিউ ইয়র্কে। সমকামীদের বার স্টনওয়াল ইন-এ পুলিশ তল্লাশি চালায় এবং আটক করে যার প্রতিবাদে ৫দিন ব্যাপী চলে আন্দোলন। সেই আন্দোলনের হাত ধরে সমকামীদের (এলজিবিটিকিউ+) বৃহত্তম আন্দোলন ও র‍্যালি 'প্রাইড'। এ বছর বিশ্বের ৪৬টি দেশের ১৭৪ শহরে উদযাপন করা হবে তাদের সফলতার ৫০ বছর। আর এই উদযাপনের পাশে থাকছে বিশ্বের সবচাইতে জনপ্রিয় সার্চ ইঞ্জিন গুগল

স্টনওয়াল ইন-এ হামলার প্রতিবাদে এক বছর পর দিনটিকে স্মরণ করে ১৯৭০ সালে প্রথমবারের মত রাজপথে 'প্রাইড' শোভাযাত্রা করা হয়। ১৯৭২ সালে সুইডেন প্রথম দেশ হিসেবে লিঙ্গ পরিবর্তনের সার্জারিকে বৈধ ঘোষণা করে। এই পথ চলায় দীর্ঘ চড়াই উৎরাই পারি দিয়ে ১৯৭৮ সালে প্রথমবারের মত তোলা হয় সমকামীদের প্রতীক হয়ে ওঠা সাত রঙের 'রেইনবো' পতাকা।

এক সময় এইডস রোগটিকে 'গে প্লেগ' বলে ডাকা হত। যা সমকামীদের অপমানের উদ্দেশ্যেই নামকরণ করা হয়। ১৯৮২ সালে এই নামকরণ বন্ধ করে 'এইডস' রোগের নামকরণ ও এর সচেতনতা কার্যক্রম আরো ব্যাপ্ত করা হয়।

এরপর দীর্ঘদিন কোন উল্লেখযোগ্য ঘটনা নেই। এরপর ১৯৯৯ সালে নিউজিল্যান্ডে প্রথমবারের মত কোন ট্রান্স জেন্ডার পার্লামেন্টের সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হন। যার নাম জর্জিনা বেয়ার। এর পরের বছরই নেদারল্যান্ড সমকামীদের মধ্যে বিবাহকে রাষ্ট্রীয়ভাবে অনুমোদন প্রদান করে। এরপর একে একে যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র, তাইওয়ানসহ আরো বেশ কিছু স্থানে সমকামী বিবাহকে অনুমোদন প্রদান করা হয়।

গুগল চলতি মাসে প্রকাশিত এক ভিডিওতে জানায়, এবার 'এলজিবিটিকিউ+'-এর প্রাইড র‍্যালি উপলক্ষে বিশেষ আয়োজন করছে গুগল। যেখানে ৫০ বছর আগ থেকে চলা সমকামীদের অধিকারের লড়াইয়ের জন্য বিভিন্ন আন্দোলন ও উল্লেখযোগ্য ঘটনা নিয়ে ভিডিও প্রকাশ করা হবে। এখানে বিগত বছরগুলোতে আন্দোলনে অংশ নেয়া গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের সাক্ষাৎকারও প্রকাশ করা হবে।

'এলজিবিটিকিউ+'-এর প্রাইড র‍্যালি ও উল্লেখযোগ্য ইতিহাসগুলো জানতে পারবেন এই লিংকে: https://stonewallforever.org/


মানবকণ্ঠ/আরএ



Loading...
ads


Loading...