দেহরক্ষী থেকে রানি



  • অনলাইন ডেস্ক
  • ২১ মে ২০১৯, ১৯:৪৯

নিজের দেহরক্ষী বাহিনীর একজন সদস্যকে বিয়ে করে থাইল্যান্ডের রানি হিসেবে ঘোষণা দিয়েছেন থাই রাজা ভাজিরালংকর্ন। রাজকীয় এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, ৪ মে বিস্তৃত পরিসরে বাজিরালংকর্নের রাজ্যাভিষেক অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়। এর মাত্র তিনদিন আগে বিয়ে করে নতুন স্ত্রীকে রানি সুথিদা উপাধি দেন ভাজিরালংকর্ন।

২০১৬ সালে রাজা ভূমিবল আদুলিয়াদেজের মৃত্যুর পর দেশটির সাংবিধানিক রাজা হন ৬৬ বছরের মহা ভাজিরালংকর্ন। রাজা ভাজিরালংকর্ন এর আগে তিনবার বিয়ে করেছেন এবং তাদের ছাড়াছাড়িও হয়ে গেছে। তার সাতটি সন্তানও রয়েছে।

রাজকীয় এক ঘোষণায় বলা হয়েছে, রাজা ভাজিরালংকর্ন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন যে, জেনারেল সুথিদা ভাজিরালংকর্ন আয়ুদাহকে রানি সুদিথা হিসেবে ঘোষণা দিচ্ছেন এবং তিনি রাজ পরিবারের নিয়মানুযায়ী রাজকীয় পদবি ও মর্যাদা ভোগ করবেন।

থাই এয়ারলাইন্সের সাবেক বিমানবালা সুথিদা তিদজাইকে নিজের দেহরক্ষী বাহিনীর উপ-প্রধান হিসেবে ২০১৪ সালে নিয়োগ দেন ভাজিরালংকর্ন। ২০১৬ সালের ডিসেম্বরে তাকে সেনাবাহিনীর একজন পূর্ণ জেনারেল হিসেবে পদোন্নতি দেন রাজা ভাজিরালংকর্ন।

প্রসঙ্গত, তার পিতা রাজা ভূমিবল আদুলিয়াদেজ ৭০ বছর ধরে থাইল্যান্ডের রাজা ছিলেন। তিনি ছিলেন বিশ্বের সবচেয়ে দীর্ঘ সময় শাসনকারী রাজা। সূত্র: বিবিসি বাংলা

মানবকণ্ঠ/এফএইচ




Loading...
ads




Loading...