এরকম মিথ্যেবাদী ও অভদ্র প্রধানমন্ত্রী জীবনে দেখিনি: মমতা



  • অনলাইন ডেস্ক
  • ১৪ মে ২০১৯, ১৫:৩০

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির প্রতি ইঙ্গিত করে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, একজন প্রধানমন্ত্রী এত মিথ্যে কথা বলে, এত মিথ্যেবাদী, এত লুটেরা, এত মিথ্যে কথা বলে যে একটা শিশুও এত মিথ্যে কথা বলে না! লোকসভা নির্বাচনের প্রচারে সোমবার পশ্চিমবঙ্গের মেটিয়াবুরুজে দলীয় জনসভায় ভাষণ দেয়ার সময় তিনি ওই মন্তব্য করেন।

নরেন্দ্র মোদির সমালোচনা করে তৃণমূল নেত্রী মমতা বলেন, দাঙ্গা করে প্রধানমন্ত্রী হয়েছে। সাড়ে চার বছর দেশ থেকে পালিয়ে গিয়ে শুধু বিদেশে ঘুরে বেড়ালো। এমনকি পাকিস্তানে গিয়েও প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে চুপিচুপি দেখাও করে এল। আমাদের বলে পাকিস্তানি! উনি একাই যেন হিন্দুস্তানি (ভারতীয়)।

মমতা এদিন বিজেপি ও প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশ্য অত্যন্ত চড়া সুরে সমালোচনায় সোচ্চার হন। তিনি রীতিমত হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, বেশি বাড় বেড়ো না, ঝড়ে পড়ে যাবে।

মমতা বলেন, এই নির্বাচনে একটাই সিদ্ধান্ত নিতে হবে, ‘মোদি হটাও, দেশ বাঁচাও’। এদেশের একদফা কর্মসূচি, একদফা এজেন্ডা ‘মোদি হটাও, দেশ বাঁচাও’। দেশকে রক্ষা করতে গেলে মোদিকে হটানো জরুরি আছে।

তিনি এদিন রাজ্যের সব তৃণমূল প্রার্থীকে জয়ী করার আহ্বান জানিয়ে বলেন, সব তৃণমূল প্রার্থীকে ভোটে জেতান যাতে আমরা দিল্লি দখল করতে পারি, সরকার গড়তে পারি, সম্প্রীতির সরকার গড়তে পারি।

মমতা বিজেপিশাসিত অসমে জাতীয় নাগরিকপঞ্জিতে মানুষের দুর্ভোগের কথা উল্লেখ করে বলেন, অসমে এনআরসি’র নামে ২২ লাখ হিন্দু বাঙালি ও ২০ লাখ মুসলিম বাঙালির নাম বাদ দিয়েছে আর বিহারীদেরও বাদ দিয়েছে।

তিনি বলেন, আমি রাজীব গান্ধীর সঙ্গে কাজ করেছি, আমি নরসিমা রাওয়ের সঙ্গে কাজ করেছি, আমি এমনকি অটলজির সঙ্গে কাজ করেছি, মনমোহন সিংজির সঙ্গে কাজ করেছি। কিন্ত আমি এরকম এত মিথ্যেবাদী ও অভদ্র প্রধানমন্ত্রী জীবনে দেখিনি।

মানবকণ্ঠ/এসএস



Loading...


Loading...