ঈদের দিন স্কুলছাত্রীকে মুখ বেঁধে গণধর্ষণ



  • অনলাইন ডেস্ক
  • ১৪ আগস্ট ২০১৯, ১৪:২০

সপ্তম শ্রেণির এক ছাত্রী গণধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত সোমবার ঈদের দিনের ওই ঘটনায় মঙ্গলবার রাতে ঝিনাইদহ সদর থানায় একটি মামলা হয়েছে। ওই তরুণীর চাচা জানান, ঈদের দিন সন্ধ্যায় পৌর এলাকার খাজুরা গ্রামের মুন্তাজ আলীর ছেলে বাদশা, মন্টু মন্ডলের ছেলে রুহুল আমীন ও একই গ্রামের জাফরের ছেলে মুন্নু তার ভাতিজিকে মাঠ থেকে তুলে নিয়ে ধর্ষণ করে।

পরে ক্যাডেট কলেজের সামনের একটি আবাসন এলাকায় ফেলে যায় তারা। এক পর্যায়ে ভূমিহীন পাড়ার এক ব্যক্তি তার ভাতিজিকে বাড়ি পৌঁছে দেন। এরপর সে ঘটনাটি খুলে বলে।

ওই স্কুলছাত্রীর বাবা জানান, তিনি মেয়েটিকে পালিত মেয়ে হিসেবে লালন পালন করছে। তার কোনো সন্তান নেই। ঈদের দিন সন্ধ্যার দিকে মেয়েটি পাশের বাড়িতে তার মাকে খুঁজতে বের হয়। এ সময় বাদশা, রুহুল আমীন ও মুন্নু তাকে মুখ বেঁধে তুলে নিয়ে ধর্ষণ করে।

ঝিনাইদহ সদর থানার ওসি মিজানুর রহমান খান বলেন, এ ব্যাপারে মেয়েটির বাবা বাদী হয়ে একটি মামলা করেছেন। আসামিদের গ্রেফতারের জন্য পুলিশ অভিযান অব্যাহত রেখেছে। নির্যাতনের শিকার মেয়েটিকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

মানবকণ্ঠ/এফএইচ




Loading...
ads




Loading...