খুলনা জিআরপি থানায় ধর্ষণ: ১৫ দিন চায় তদন্ত কমিটি

খুলনা জিআরপি থানায় ধর্ষণ: ১৫ দিন চায় তদন্ত কমিটি


  • ব্যুরো অফিস, দৈনিক মানবকণ্ঠ
  • ১৪ আগস্ট ২০১৯, ১১:৩৮

খুলনার জিআরপি থানায় ধর্ষণের ঘটনায় গঠিত দুটি তদন্ত কমিটি আরো ১৫ দিন সময় চেয়ে আবেদন করেছে। গত ১২ আগস্ট কমিটির রিপোর্ট দাখিলের নির্দেশনা ছিলো। রেলের কুষ্টিয়া সার্কেলের এএসপি ফিরোজ আহমেদ জানান, তদন্ত করতে আরো সময় প্রয়োজন।

তিনি বলেন, একটি পুলিশ সদর দফতর থেকে গঠন করা ৪ সদস্যের তদন্ত কমিটি এবং অপরটি পাকশী রেলওয়ে জেলা পুলিশ সুপারের নির্দেশে গঠন করা ৩ সদস্যের তদন্ত কমিটি এ ঘটনা তদন্ত করছে। বিষয়টিকে বেশ গুরুত্ব দিয়ে দেখা হচ্ছে এবং তদন্তে সূক্ষ্ম বিষয়গুলো তুলে ধরার চেষ্টা করা হবে। আর সে কারণেই বাড়তি সময় চেয়ে আবেদন করা হয়েছে।

খুলনার জিআরপি থানার ওসি ওসমান গনি পাঠানসহ ৫ জন পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ৬ আগস্ট এক নারী (২১) ধর্ষণের অভিযোগ করে। আদলতে ফেন্সিডিল চোরাচালানের মামলায় তাকে সোপর্দ করা হলে বিচারকের সামনে তিনি দাবি করেন, জিআরপি থানায় ওসি ওসমান গনি পাঠান এবং তারপর আরো ৫ পুলিশ কর্মকর্তা তাকে ধর্ষণ করে। বিষয়টি আমলে নিয়ে মেডিকেল রিপোর্টের জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয় ঐ নারীকে। সেখানে ধর্ষণের আলামত মিললে বিষয়টি তদন্তে নির্দেশ দেয় আদালত।

এদিকে খুলনার চাঞ্চল্যকর এ ঘটনার পর ওসিসহ অভিযুক্ত পুলিশ সদস্যদের ওএসডি করা হয়েছে। বিষয়টি সম্পর্কে খুলনার জিআরপি থানার ওসি ওসমান গনি পাঠানের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এ ঘটনার সঙ্গে তিনি জড়িত নন। গণমাধ্যমকে আর কোন মন্তব্য করতে অস্বীকৃতি জানান তিনি।

মানবকণ্ঠ/আরএ




Loading...
ads




Loading...