ট্রেনের টয়লেটে ফুসলিয়ে ধর্ষণ, গ্রেফতার ১



  • অনলাইন ডেস্ক
  • ১১ জুলাই ২০১৯, ১৮:৫৪

মেয়েটির নানি মুগদা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তাকে দেখাতেই হাসপাতালে আসা। বুধবার বিকেলে হাসপাতালের নিচে নামলে মেয়েটিকে ফুসলিয়ে রিকশাওয়ালা সম্রাট কমলাপুর রেলস্টেশনে নিয়ে যায়। এরপর ভয় দেখিয়ে সন্ধ্যায় কমলাপুর থেকে ছেড়ে যাওয়া যমুনা এক্সপ্রেস ট্রেনে ওঠায়। তারপর টয়লেটে আটকে চলে ধর্ষণ।

এমন ঘটনা ঘটেছে ষষ্ঠ শ্রেণিতে পড়ুয়া এক কিশোরীর সাথে। এতে মেয়েটি অসুস্থ হয়ে পড়ে। পরে অসুস্থ অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে ট্রেন যাত্রীরা।

এ ঘটনায় ধর্ষক সম্রাটকে গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে। তার বাড়ি নারায়ণগঞ্জে।

রেলওয়ে পুলিশ ঢাকা জোনের এএসপি ওমর ফারুক বলেন, মেয়েটি অসুস্থ হয়ে পড়ে এবং চলাফেরা অস্বাভাবিক মনে হলে ওই যুবককে আটকে রেখে যাত্রীরা পুলিশে খবর দেয়। চলন্ত ট্রেনটি বিমানবন্দর স্টেশনে স্টপেজ দিলে পুলিশ শিশুটিকে হেফাজতে নেয় এবং সম্রাটকে আটক করে।

বিষয়টি জানতে পেরে প্রথমে বিমানবন্দর থানায় এবং পরে মধ্যরাতে ওই ভুক্তভোগীকে কমলাপুর রেলওয়ে পুলিশের হেফাজতে নেওয়া হয়। বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) দুপুরে মামলা করা হলে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে ভর্তি করা হয়।

কমলাপুর রেলওয়ে পুলিশের ইনচার্জ উপ-পরিদর্শক (এসআই) রুশো বণিক বলেন, ভুক্তভোগীর মা বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেছেন। মামলা নং ৫। আসামি সম্রাটকে গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, ওই শিশুকে উদ্ধার ও অভিযুক্ত যুবককে আটক করার ক্ষেত্রে পুলিশ গাফিলতি নয় বরং দ্রুত পদক্ষেপ নিয়েছে। মামলা হয়েছে। ওই যুবককে মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে সোপর্দ করা হলে ধর্ষণের বিষয়ে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিও দেয়।

মানবকণ্ঠ/এইচকে



Loading...
ads


Loading...