‘মার্কিনিরা হচ্ছে ইতিহাসের সবচেয়ে যুদ্ধপ্রিয় জাতি’



  • অনলাইন ডেস্ক
  • ১৬ এপ্রিল ২০১৯, ১৭:৫৫

যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট জিমি কার্টার বলেছেন, মার্কিনিরা হচ্ছে ইতিহাসের সবচেয়ে যুদ্ধপ্রিয় জাতি এবং এ কারণে চীন একসময় আমেরিকাকে অর্থনৈতিকভাবে পেছনে ফেলবে। তিনি বলেন, বর্তমান প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প চীন প্রসঙ্গে তার সঙ্গে কথা বলেছেন এবং ট্রাম্প নিজেই চীনকে চিন্তিত। তিনি ধারণা করছেন, সীমাহীন যুদ্ধের কারণে চীন আমেরিকাকে পেছনে ফেলবে।

জিমি কার্টার বলেন, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের এই ধারণা ও উদ্বেগ মোটেই অমূলক নয় কারণ চীন তার অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি দিয়ে নিজেকে শক্তিশালী করে তুলবে। আমেরিকা তার ২৪২ বছরের ইতিহাসে মাত্র ১৬ বছর শান্তির মধ্যে ছিল, বাকি সময় যুদ্ধবিগ্রহ করে কাটিয়েছে।

জিমি কার্টার প্রশ্ন করেন, আপনারা কেউ বলতে পারবেন ১৯৭৯ সালের পর থেকে চীন কয়টি দেশের সঙ্গে যুদ্ধ করেছে? একটি দেশের সঙ্গেও নয়, অথচ আমরা সবসময় যুদ্ধের মাঝে আছি এবং এভাবে আমরা বিশ্বের সবচেয়ে যুদ্ধপ্রিয় জাতিতে পরিণত হয়েছি। আমেরিকা তার নিজের নীতি অন্য দেশগুলোর ওপর চাপিয়ে দিতে চায় বলেই এসব যুদ্ধ সংঘটিত হয়।

১৯৭৯ সালে জিমি কার্টার চীনের সঙ্গে আমেরিকার সম্পর্ক স্বাভাবিক করেছিলেন।

জিমি কার্টার বলেন, শান্তি রক্ষার মাধ্যমে চীন বিরাট অগ্রগতি অর্জন করেছে। তারা প্রায় সবক্ষেত্রে আমেরিকার চেয়ে এগিয়ে যাচ্ছে। আমেরিকার সামরিক খাতে ব্যয় করেছে তিন ট্রিলিয়ন ডলার অথচ চীন যুদ্ধের পেছনে একটি পয়সাও ব্যয় করে নি।

জিমি কার্টার ১৯৭৭ থেকে ১৯৮১ সাল পর্যন্ত আমেরিকার প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছিলেন।

মানবকণ্ঠ/এসএস



Loading...
ads


Loading...