জনগণ রাষ্ট্র নায়ক শেখ হাসিনার উন্নয়ন চিন্তার মধ্যমণি: নানক



  • অনলাইন ডেস্ক
  • ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২১:৫২

জনগণ রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার যে কোনো উন্নয়ন চিন্তার মধ্যমণি বলে মন্তব্য করেছেন।। আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক।

তিনি বলেন, জনকল্যাণ মুলক উন্নয়নের পক্ষে শেখ হাসিনা। তিনি জনবিচ্ছিন্ন উন্নয়নের পক্ষে নন। অপ্রয়োজনী রাস্তা-ঘাট নির্মাণ, বা বড় বড় ভবন নির্মাণ যেগুলো জনগণের উপকার না হয়, শেখ হাসিনা সেগুলোর পক্ষে নয়। গত ১০ বছরের বেশি সময় ধরে বাংলাদেশের উন্নয়নের অগ্রযাত্রা সারাবিশ্বে রোল মডেল হিসেবে আবির্ভূত হয়েছে।

বুধবার (১১ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউটে '২৮ সেপ্টেম্বর রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার জন্মদিন' উপলক্ষে উত্তর যুবলীগ আয়োজিত এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

জাহাঙ্গীর কবির নানাক বলেন, শেখ হাসিনা নেতৃত্বাধীন সরকার শিক্ষা, স্বাস্থ্য, কৃষি, শিল্পসহ সবক্ষেত্রেই যে উন্নয়ন করেছে, সে উন্নয়নের সুফল ভোগ করছে জনগণ। সবচেয়ে বড় কথা হচ্ছে রাষ্ট্র নায়ক শেখ হাসিনার যেকোনো সিদ্ধান্তের ক্ষেত্রে অগ্রভাগে থাকে জনগণ। এজন্যই বাংলাদেশ থেকে দারিদ্র্যের হার ও বৈষম্য কমেছে। বাংলাদেশ মানবিক উন্নয়নের একটি রাষ্ট্র হিসেবে বিশ্বে রোল মডেল হয়েছে। রাষ্ট্র নায়ক শেখ হাসিনার জনগণের ক্ষমতায়ন দর্শনের কারণেই এমনটা হয়েছে।

'সরকারের নতজানু পররাষ্ট্রনীতির কারণে রোহিঙ্গা ফিরে যাচ্ছে না ' বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের এই বক্তব্যের সমালোচনা করে আওয়ামী লীগের এ নেতা বলেন, আমি তাদের (বিএনপি) কাছে প্রশ্ন করতে চাই। এই রোহিঙ্গা তো আপনাদের সময়ও এসেছিলো। তখন রোহিঙ্গাদের ফিরতে দেন নি। যে রোহিঙ্গা এসেছে বিশ্ব নেতা শেখ হাসিনা এই রোহিঙ্গাদের ফিরত পাঠাবেন, পাঠাবেনই। আমাদের নেত্রী শেখ হাসিনা যে কথা বলেন, সে কথা পালন করেন। আমি মনে করি মানবতার মা, আমাদের জননেত্রী শেখ হাসিনা রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়ে তিনি সঠিক কাজ করেছেন।

তিনি বলেন, জিয়াউর রহমানের ক্ষমতা দখলকে তিনি বলেছিলেন অবৈধ, তখন আমাদের মনে প্রশ্ন জেগে ছিলো। সর্বোচ্চ আদালতে তা প্রমাণ হয়েছে। জিয়া ও এরশাদের ক্ষমতা দখল ছিলো অবৈধ। উনি (শেখ হাসিনা) বলেছিলেন তারেক রহমান দুর্নীতিগ্রস্ত, খালেদা জিয়া সরকার দুর্নীতিগ্রস্ত, সেটি আদালতে আজ প্রমাণিত। জাহানারা ইমামকে স্টেজে বসিয়ে তিনি বলেছিলেন এই বাংলার মাটিতে যুদ্ধাপরাধীদের বিচার হবে। তিনি যুদ্ধাপরাধীদের বিচার করেছেন। বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচার করেছেন। রায় কার্যকর করেছেন।

রংপুর- ৩ আসন উপনির্বাচনে বিএনপির অংশ গ্রহণ প্রসঙ্গে সাবেক যুবলীগের চেয়ারম্যান বলেন, মতিভ্রম থেকে বেড়িয়ে এসে উপনির্বাচনে অংশ গ্রহণ করার বিএনপিকে ধন্যবাদ জানাই।

উত্তর যুবলীগের সভাপতি মাঈনুল হোসেন খান নিখিলের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরও বক্তৃতা করেন বাংলাদেশ অর্থনীতি সমিতির সভাপতি অধ্যাপক আবুল বারকাত, যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সাংসদ মির্জা আজম, যুবলীগ চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক হারুনুর রশিদ প্রমুখ।

মানবকণ্ঠ/এআইএস




Loading...
ads




Loading...