ঘরবাড়ি বানানোর আগে রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিন: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ঘরবাড়ি বানানোর আগে রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিন: পররাষ্ট্রমন্ত্রী - ছবি: প্রতিবেদক।

poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৫:৩২

রোহিঙ্গাদের ফেলে আসা বিধ্বস্ত ঘরবাড়ি অপসারণ করে সেখানে তাদের জন্য মিয়ানমার সরকার আশ্রয়কেন্দ্র বানাচ্ছে এমন খবরের প্রসঙ্গে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমেন বলেছেন তাদের (রোহিঙ্গাদের) জন্য ঘরবাড়ি বানানোর আগে তাদের ফিরিয়ে নিতে হবে মিয়ানমার সরকারকে।

বুধবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ে পিকেএসএফ ভবনে ‘টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট- ৩ : সুস্বাস্থ্য ও কল্যাণ’ বিষয়ক সেমিনার শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধকালে ভারতে আশ্রয় নেয়া বাংলাদেশি শরণার্থীদের উদাহরণ টেনে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমাদের শরণার্থীদের ফিরিয়ে আনার সময় ঘরবাড়ির কথা ভাবা হয়নি। ফিরে এসে নিজেরাই ঘরবাড়ি তৈরি করে নিয়েছেন তারা।

তিনি বলেন, আমরা যখন ভারত থেকে আসি তখন দেখি ঘরবাড়ি নেই। পাক আর্মিরা সব ভেঙে ফেলেছে। আমরা ভারত থেকে নিজেদের লোকদের ফেরত আনার সময় চিন্তা করিনি ঘরবাড়ি আছে কি নেই।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, রোহিঙ্গারা যখন বাংলাদেশে আসে তখন কিন্তু ঘরবাড়ির চিন্তা করেনি। যখন তাদের যাওয়া শুরু হবে গিয়ে ঠিকই ঘরবাড়ি তৈরি করবে। না গেলে কীভাবে ঘরবাদি তৈরি করবে?

ড. মোমেন বলেন, মিয়ানমার আশ্রয় কেন্দ্র তৈরি করছে কি না সে বিষয়ে আমরা নিশ্চিত নই। তবে নিশ্চয় তারা কোনো অ্যারেঞ্জমেন্ট করবে। বারবার আমাদের কাছে ওয়াদা করেছে মিয়ানমার।

তিনি বলেন, মিয়ানমার কিছুদিন আগেও রাখাইনে কাউকে নিতে রাজি ছিল না। সম্প্রতি সেখানে কয়েকজন রাষ্ট্রদূতসহ আরও কয়েকজনতে তারা রাখাইনে নিতে সম্মতি জানিয়েছে। রাষ্ট্রদূতরা সেখনে যাবেন। পরিস্থিতি দেখবেন।

রোহিঙ্গাদের স্বেচ্ছায় মিয়ানমারে প্রত্যাবাসন প্রসঙ্গে ড. মোমেন বলেন, মিয়ানমারের দায়িত্ব তাদের নিরাপত্তা দেয়া। তারা যেন নিরাপদ বোধ করে নিজ দেশে ফিরে যায় সেই দায়িত্ব মিয়ানমারের।

অপর এক প্রশ্নের জবাবে পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, ভাসানচরে রোহিঙ্গা শরণার্থীদের স্থানান্তরের বিষয়ে এখনও সিদ্ধান্ত হয়নি।

মানবকণ্ঠ/এআইএস




Loading...
ads




Loading...