প্রিয়া সাহার অভিযোগে দেশের সম্প্রীতি নষ্ট হবে না: নৌ প্রতিমন্ত্রী



  • অনলাইন ডেস্ক
  • ২০ জুলাই ২০১৯, ১৫:২৭

নৌ-পরিবহন প্রতিমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, প্রিয়া সাহা নামে এক মহিলা বাংলাদেশের বিরুদ্ধে আমেরিকার প্রেসিডেন্টের কাছে যে অভিযোগ করেছেন তা তিনি ব্যক্তি স্বার্থেই করেছেন। নিশ্চয়ই এর পিছনে তার বা কোন গোষ্ঠীর স্বার্থ আছে। এ ধরনের দু-একজন মানুষের অভিযোগ দিয়ে বাংলাদেশের মূল চেতনাকে কখনই ধ্বংস করা যাবে না।

শনিবার দুপুরে দিনাজপুরে ফলদ বৃক্ষ মেলার উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন নৌ-পরিবহন প্রতিমন্ত্রী।

খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেন, প্রিয়া সাহা যে অভিযোগ করেছেন বাংলাদেশে এ ধরনের কোন পরিস্থিতি নেই। ইতোমধ্যেই বাংলাদেশে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত বলেছেন, সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতিতে বাংলাদেশ একটা মডেল। বিভিন্ন ধর্মের মানুষের একসঙ্গে বসবাসের শান্তিপূর্ণ আবাসভূমি পৃথিবীর কোথাও নেই।

তিনি বলেন, ইতোপূর্বেও বেগম খালেদা জিয়া আমেরিকা কংগ্রেসের কাছে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে চিঠি লিখেছিলেন এবং এগুলো একটি দেশবিরোধী কর্মকাণ্ড। বাংলাদেশ অসাম্প্রদায়িক চেতনায় যে মুক্তিযুদ্ধ করেছিলো, জিয়া-এরশাদ-খালেদারা সেই চেতনা ধ্বংস করতে পারে নাই। এই ধরনের দু-একজন মানুষের অভিযোগ দিয়ে বাংলাদেশের মুল চেতনাকে কখনই নষ্ট করা যাবে না।

প্রিয়া সাহার অভিযোগকে দেশ বিরোধী হিসেবে আখ্যায়িত করে খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেন, এতে আমরা বিচলিত নই। সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি অক্ষুন্ন রাখতে বাংলাদেশের মানুষ ঐক্যবদ্ধ আছে।

এর আগে বৃক্ষমেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রতিমন্ত্রী বলেন, বিএনপি দেশের রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় আসে এ দেশকে মরুভূমি বানানোর জন্য। আওয়ামী লীগ দেশকে পরিবেশবান্ধব করে গড়ে তোলতে চায়। আওয়ামী লীগ টেকসই উন্নয়নে বিশ্বাস করে। পরিবেশবান্ধব বাংলাদেশ গড়ে তুলতে আমাদের নেত্রী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শতবর্ষী ডেল্টা প্ল্যান ঘোষণা করেছেন।

বিএনপি জামায়াতের সমালোচনা করে খালিদ মাহমুদ বলেন, আমরা পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষা করার জন্য বৃক্ষরোপন করি। এ বৃক্ষরোপনকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একটি আন্দোলনে রূপ দিয়েছেন। কিন্তু বিগত সময়ে বিএনপি-জামায়াত সারাদেশে হাজার হাজার গাছ নষ্ট করে এক নৈরাজ্যকর পরিস্থিতি সৃষ্টির চেষ্টা করেছিল। ওরা এ দেশকে মরুভূমি বানাতে চায়। এ সময় সবাইকে পারিবারিক ভাবে প্রতি বছর বিভিন্ন রকমের বৃক্ষরোপনের পরামর্শ দেন তিনি।

বিরল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এবিএম রওশন কবীরের সভাপতিত্বে বৃক্ষমেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, বিরল উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান একেএম মোস্তাফিজুর রহমান বাবু, বিরল উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আব্দুল লতিফ, বিরল পৌরসভার মেয়র সবুজার সিদ্দিক সাগর, বিরল উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মাহবুবার রহমান প্রমুখ।

মানবকণ্ঠ/এফএইচ

 




Loading...
ads




Loading...