দেশে একসময় গরিবের লাশের ছড়াছড়ি দেখা যাবে: নজরুল



  • অনলাইন ডেস্ক
  • ১৬ মে ২০১৯, ১৫:৫০

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান বলেছেন, সরকার উন্নয়ন উন্নয়ন বলে গলা ফাটাচ্ছে। দেশে উন্নয়ন হচ্ছে কিন্তু তা অসম উন্নয়ন। যারা ধনী তারা আরো ধনী হচ্ছেন। এদেশে বর্তমানে ধনীরা যে হারে আরো ধনী হচ্ছেন সে হারে চীন ও আমেরিকার ধনীরাও ধনী হচ্ছে না। এরকম অসম উন্নয়ন অব্যাহত থাকলে একসময় দেশে বিলাসবহুল পণ্যের ছাড়াছাড়ির সঙ্গে গরিবের লাশের ছড়াছড়ি দেখা যাবে।

বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেসক্লাবে ঐতিহাসিক ফারাক্কা দিবস উপলক্ষে জাতীয়তাবাদী কৃষক দল আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

নজরুল ইসলাম খান বলেন, দরকারি কাজের কথা ও প্রয়োজনীয় কথা অনেকেই বলেন, কিন্তু সেই প্রয়োজনীয় কাজ সবাই করেন না। মওলানা ভাসানী প্রয়োজনীয় কথা বলতেন এবং সেই প্রয়োজনীয় কাজটি করতেন। এই দেশে যতগুলো আন্দোলন সংগ্রাম হয়েছে মৃত্যুর পূর্ব মুহূর্ত পর্যন্ত মওলানা ভাসানী সেসব আন্দোলন সংগ্রামে নেতৃত্ব দিয়ে দেশ ও জনগণের কল্যানে কাজ করেছেন।

বিএনপির এই কেন্দ্রীয় নেতা বলেন,এই দেশের জনগণ গণতন্ত্রের জন্য স্বাধীনতা সংগ্রাম করেছেন, জীবন দিয়েছেন। কিন্তু আজ স্বাধীন দেশে গণতন্ত্র নেই। গণতন্ত্রকে মুক্ত করতে হলে গণতান্ত্রিক আন্দোলনে বারবার নেতৃত্ব দিয়ে বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে হবে।

নজরুল ইসলাম খান বলেন, খুবই অন্যায়ভাবে প্রতিহিংসাপরায়ণ হয়ে শুধুমাত্র রাজনৈতিক স্বার্থ হাসিলের লক্ষ্যে সরকার খালেদা জিয়াকে আটকে রেখেছে। বেগম জিয়ার মামলার শুনানির সময় আমরা সারা দিন আদালতে যেয়ে বসে থাকতাম। সেখানে সরকার দলীয় কোনো আইনজীবী বেগম জিয়ার বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ প্রমাণ করতে পারেননি। তারা ধারণা করছেন, বেগম জিয়া এসব অভিযোগের সঙ্গে জড়িত। আদালত কি ধারণা দিয়ে পরিচালনা হয়? আদালত প্রমাণ চায়।

বিএনপির এই স্থায়ী কমিটির সদস্য বলেন, বাংলাদেশ ভারতের বন্ধুপ্রতীম দেশ কিন্তু আমাদের সঙ্গে তাদের যেসকল চুক্তি হয়েছে আমরা সেই চুক্তি অনুযায়ী ন্যায্য অধিকার পাচ্ছি না। পাকিস্তান ও ভারতের মধ্যে এত যুদ্ধ এত বৈরিতা কিন্তু তাদের মধ্যেও তো পানি চুক্তি আছে এবং তা সঠিকভাবে মানা হচ্ছে। কিন্তু আমাদের ফারাক্কা চুক্তির কেন বাস্তবায়ন হচ্ছে না।

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী কৃষক দলের আহ্বায়ক ও বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদুর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান বেগম সেলিনা রহমান ও বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল।

মানবকণ্ঠ/এসএস



Loading...
ads


Loading...