জনসম্মুখে জামায়াতকে ক্ষমা চাইতে হবে: জাফরুল্লাহ



  • অনলাইন ডেস্ক
  • ১৫ মে ২০১৯, ১৭:৫২

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেছেন, ২০ দলের অন্যতম শরীক দল হচ্ছে জামায়াতে ইসলামী। তারা যদি সত্যিকার অর্থে বেগম খালেদা জিযার মুক্তি চায় তাহলে তাদেরকে জনসম্মুখে ক্ষমা চাইতে হবে। আজ তাদের পিতারা যে ভুল করেছেন তার জন্য বর্তমানে যারা আছে তাদেরকে জনসম্মুখ ক্ষমা চাওয়ার যুক্তি সঙ্গত কারন তাদেরও রাজনীতি করার অধিকার রয়েছে।

বুধবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে আব্দুস সালাম হলে এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। এ সময় জামায়াত ইসলামীর নায়েবে আমীর গোলাম পরওয়ার মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন তবে তিনি এ বিষয়ে কোনো বক্তব্য রাখেননি। মধ্যবর্তী নির্বাচন এবং বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি শীর্ষক আলোচনা সভার আয়োজন করে লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি এলডিপি।

জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার চারপাশে ‘র’ পরিবেশিত। তাদের চিন্তা চেতনার কারনেই খালেদা জিয়া আজ জেলে। আর খালেদা জিয়াকে বের করে আনতে সামগ্রিক আন্দোলনের প্রয়োজন। সেই আন্দোলনের মুল ভুমিকা বিএনপিকেই রাখতে হবে। বিএনপিকে সকল প্রকার ভুল ত্রুটি ভুলে গিয়ে বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য কাজ করতে হবে।

বেগম খালেদা জিয়াকে আটক রেখে প্রধানমন্ত্রী ভুল করছেন এমন মন্তব্য করে তিনি বলেন, আপনি (প্রধানমন্ত্রী) মহাভুল করছেন, মুক্তিযুদ্ধের সময় খালেদা জিয়া তিন মাস আত্মগোপনে ছিলেন। তারপর তিনি যখন গ্রেফতার হন তখন সেনানিবাসে আবদ্ধ ছিলেন। ধানমন্ডির বাড়িতে দুজনেই একসঙ্গে ছিলেন। কিন্তু আজ একজন বন্দি আর একজন বাহিরে। আপনি আত্মরক্ষা করতে চান তাহলে আর দেরি না করে খালেদা জিয়ার জামিনের ব্যবস্থা করে দিন।

প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, আজ আপনি যা স্বপ্ন দেখছেন, সব স্বপ্ন বিভিন্ন ভাবে ভুল পথে নেমে যাচ্ছে। একদিন আপনি বলেছেন দেশে চিকিৎসা নিবেন, কিন্তু আপনি দেশে চিকিৎসা নিতে পারেন নি। কেন পারেন নি? আজ আপনি যেই উন্নয়নের কথা বলছেন, কিন্তু কৃষক নিজেই ধান পুড়িয়ে ফেলছে।

মানবকণ্ঠ/এসএস



Loading...
ads


Loading...