ওসিকে প্রত্যাহার করে সরকার দায় এড়াতে চাচ্ছে: রিজভী



  • অনলাইন ডেস্ক
  • ১৩ এপ্রিল ২০১৯, ১৬:৫১

সোনাগাজী থানার ওসিকে প্রত্যাহার করে সরকার দায় এড়াতে চাচ্ছে অভিযোগ করে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, নুসরাত যখন ওসির কাছে অভিযোগ করেছিলো তখন পদক্ষেপ নিলে তার এই নির্মম পরিণতি হত না।

শনিবার নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ অভিযোগ করেন।

রিজভী বলেন, সোনাগাজীর ওসি দায়িত্ব অবহেলা করছে। তিনি নুসরাত অভিযোগের প্রেক্ষিতে কোনো পদক্ষেপ না নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের নামে নুসরাতকে যৌন হেনস্তা করেছে। যা তার ধারণকৃত ভিডিওতে প্রমাণিত।

ফেনীতে মাদরাসা ছাত্রী নুসরাতকে আওয়ামী লীগের লোকেরা পুড়িয়ে মেরেছে অভিযোগ করে তিনি বলেন, হত্যাকারীদের বাঁচাতে অপচেষ্টা চালানো হচ্ছে। কিন্তু বিএনপির নেতা কর্মীদের মামলার আসামি করা হচ্ছে। সারাদেশের মানুষের কাছে স্পষ্ট কারা নুসরাতকে পুড়িয়ে মেরেছে। তাই জনগণ কোনো মিথ্যাচারে বিশ্বাস করবে না।

তিনি বলেন, সরকার দলীয় নেতাকর্মীরা আগুন সন্ত্রাসী করে যা বিভিন্ন সময়ে প্রমাণিত হয়েছে। সরকার দলীয় স্থানীয় নেতারা লম্পট অধ্যক্ষের পক্ষে সাফাই গাইছে অভিযোগ করে তিনি বলেন, নুসরাত হত্যা মামলা সাংবাদিক দম্পতি সাগর-রুনী হত্যা মামলার ন্যায় রূপ নেয় কি না সে বিষয়ে জনমনে যথেষ্ট সন্দেহের সৃষ্টি হয়েছে।

রিজভী আরো অভিযোগ করে বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব বিশ্ববিদ্যালয় মেডিকেল কলেজ (বিএসএমইউতে) বিএনপি চেয়ারপার্সনের সুচিকিৎসা হচ্ছে না। বিএসএমএমইউতে বেগম জিয়ার চিকিৎসার জন্য প্রয়োজনীয় আধুনিক যন্ত্রপাতি নেই।

রুহুল কবির রিজভী বলেন, সরকার দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার চিকিৎসা নিয়ে মিথ্যাচার করছে। যা অত্যন্ত পীড়াদায়ক। সরকার দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে কারাগারে আটকে রেখে বাকশাল কায়েম করতে চায়। সরকারের এরকম ঘৃণ্য চক্রান্তের আমরা তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই।

সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন- বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শওকত মাহমুদ প্রমুখ।

মানবকণ্ঠ/এসএস



Loading...
ads


Loading...